যুবলীগের নতুন কমিটিতে অনুপ্রবেশকারীদের বিষয়ে জিরো টলারেন্স

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৭:৩৮ পিএম, ২২ অক্টোবর ২০১৯

মাদক ব্যবসায়ী, দুর্নীতিবাজ, চাঁদাবাজ ও অনুপ্রবেশকারীদের বিরুদ্ধে যুবলীগ জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণ করবে বলে জানিয়েছেন যুবলীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক চয়ন ইসলাম।

মঙ্গলবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ে যুবলীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন।

চয়ন ইসলাম বলেন, আগামী ২৩ নভেম্বরের ৭ম জাতীয় কংগ্রেস বাস্তবায়নই আমাদের একমাত্র চ্যালেঞ্জ। আমরা সব ভেদাভেদ ভুলে ঐক্যবদ্ধাবে এই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করবো। উৎসবমুখর পরিবেশে একটি সুন্দর কংগ্রেস আয়োজন করবো।

তিনি আরও বলেন, মাদক ব্যবসায়ী, দুর্নীতিবাজ, চাঁদাবাজ ও অনুপ্রবেশকারীসহ যেকোনো অপরাধে সম্পৃক্তদের বিষয়ে আমরা জিরো টলারেন্সে। আসন্ন কংগ্রেসে তারা আমাদের সঙ্গে থাকতে পারবে না। আমরাও তাদের সঙ্গে থাকবো না। আমরা এক মাস একদিন সময় পেয়েছি। এর মধ্যে সবার ঐক্যবদ্ধ প্রচষ্টায় একটি সফল সম্মেলন করবো। এটাই এখন আমাদের একমাত্র চ্যালেঞ্জ।

সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব ও সাধারণ সম্পাদক হারুনুর রশীদ বলেন, ঐক্যবদ্ধভাবে নতুন দিনের জন্য একটি সুন্দর সম্মেলন করে কমিটি দেয়াই আমাদের প্রধান কাজ। আমরা নেত্রীর সঙ্গে পরামর্শ করে এটি করবো।

গত ২০ অক্টোবর দায়িত্ব পাওয়ার পর এই প্রথম অফিসে আসেন সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক চয়ন ইসলাম ও সদস্য সচিব হারুনুর রশীদ। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন প্রেসিডিয়াম সদস্য আতাউর রহমান, সাঈদুর রহমান সাঈদ, ফারুক হোসেন, মজিবুর রহমান চৌধুরী, আনেয়ার হোসেন, বেলাল হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক সুব্রত পাল, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক আতিক, এসএম জাহিদ, প্রচার সম্পাদক ইকবাল মাহমুদ বাবলু, উপ-স্বাস্থ্য সম্পাদক হেলালুদ্দিন, ঢাকা মহানগর উত্তরের সভাপতি মাইনুল হাসান নিখিল, সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, দক্ষিণের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রেজা প্রমুখ।

এইউএ/এমএসএইচ/জেআইএম