এথেন্সে রন্ধন শিল্পের প্রশিক্ষণ কোর্স উদ্বোধন

প্রবাস ডেস্ক প্রবাস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০২:৩১ পিএম, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

বাংলাদেশ দূতাবাস এথেন্সের উদ্যোগে প্রবাসীদের জন্য প্রথমবারের মতো রন্ধন শিল্পের উপর মৌলিক প্রশিক্ষণ কোর্সের আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু হয়েছে। দূতাবাসের সার্বিক তত্ত্বাবধান ও দেশটির শীর্ষস্থানীয় প্রশিক্ষণ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান আইইকে ডেল্টার মাধ্যমে শনিবার এই কোর্সের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছে।

ভিডিও কনফারেন্সের সাহায্যে প্রশিক্ষণ কোর্সটির উদ্বোধন করেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ইমরান আহমদ। এ সময় প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীনও অংশগ্রহণ করেন।

এছাড়াও, গ্রিসে নবনিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আসুদ আহমেদ উপস্থিত ছিলেন। গ্রিস প্রবাসী ১৫ জন বাংলাদেশি তরুণ-তরুণী এই রন্ধন শিল্পের উপর মৌলিক প্রশিক্ষণ কোর্সের প্রথম ব্যাচে অংশগ্রহণ করেন।

jagonews24

এই প্রশিক্ষণ ঘিরে প্রবাসীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ ও উদ্দীপনা লক্ষ্য করা গেছে। দেশটিতে নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত আসুদ আহমেদ প্রশিক্ষণ কার্যক্রমটি পরিচালনা করার অনুমতি দানের জন্য প্রবাসবান্ধব বাংলাদেশ সরকারকে আন্তরিক ধন্যবাদ এবং আগ্রহী প্রশিক্ষণার্থীদের স্বাগতম জনান।

গ্রিসের অর্থনীতি মূলত তিনটি সেক্টরের উপর নির্ভরশীল- তৈরি পোশাক শিল্প, কৃষি খাত এবং রেস্টুরেন্ট খাত। এর মধ্যে রেস্টুরেন্ট খাতে শ্রমিকের চাহিদা সবচেয়ে বেশি। প্রতি বছর দেশটির মোট জনসংখ্যার চেয়ে বেশি পরিমাণে পর্যটক আসে। এই বিপুল সংখ্যক পর্যটকদের খাবারের যোগান দিতে দক্ষ জনশক্তি প্রয়োজন।

যেহেতু, বাংলাদেশ থেকে বৈধ পথে দক্ষ জনশক্তি আমদানির সুযোগ এখনও পর্যন্ত সৃষ্টি হয়নি সেহেতু, এই খাতে স্থানীয় প্রবাসী বাংলাদেশিদের যোগ্যতা প্রমাণের যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে, উপর্যপুরি গ্রিসে বসবাসরত বাংলাদেশিদের রেস্টুরেন্টে কাজের উপর পর্যাপ্ত দক্ষতা ও সুযোগ না থাকায় তারা সঠিক মর্যাদা ও বেতন পাচ্ছেন না।

সেই অভাব পূরণের লক্ষ্যেই বাংলাদেশ দূতাবাস এথেন্স, গ্রিসের যুগান্তকারী এই উদ্যোগ অদক্ষ ও অপেক্ষাকৃত নতুন প্রবাসীদের প্রশিক্ষণের মাধ্যমে দক্ষতা বৃদ্ধি করে কর্মসংস্থান সৃষ্টির নতুন-নতুন সুযোগ তৈরি করে দেবে এবং কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে বাংলাদেশের রেমিট্যান্স প্রবাহ বৃদ্ধি পাবে।

রাষ্ট্রদূত প্রশিক্ষণার্থীদের গ্রিসে জীবিকার জন্য অক্লান্ত পরিশ্রমের পাশাপাশি সর্বদা বাংলাদেশের সুনাম ও মর্যাদার দিকে খেয়াল রাখতে পরামর্শ দেন। অদূর ভবিষ্যতে তাদের মাধ্যমেই গ্রিককদের সঙ্গে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক সৃষ্টি হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

তিনি এ আয়োজনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আইইকে ডেল্টা ট্রেনিং ইনিস্টিটিউটের সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। তিনি প্রবাসীদের দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য এ ধরনের আয়োজনের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার প্রতিশ্রুতি প্রদান করায় মন্ত্রীকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

এমআরএম/জেআইএম

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - [email protected]