সুন্নত এখন পশ্চিমায় মডেল

জমির হোসেন
জমির হোসেন জমির হোসেন , ইতালি প্রতিনিধি ইতালি থেকে
প্রকাশিত: ০৪:৫০ পিএম, ০৬ ডিসেম্বর ২০১৮

ইসলামি শরিয়ত মোতাবেক টাখনুর নিচে কাপড় পরা জায়েজ নয়। বিশ্ব নবায়নের এ যুগে কাপড় পরিধানে চলে এসেছে প্রতিযোগিতা। পোশাক পরিধানের সুন্নত পশ্চিমা দেশে অমুসলমানরা মডেল হিসেবে নিচ্ছে।

বিশেষ করে ইতালিতে টাখনুর ওপর কাপড় পরা ইতালিয়ান তরুণ-তরুণীরা ফ্যাশন হিসেবে নিয়েছে। দীর্ঘ দশ বছর ধরে টাখনুর ওপর প্যান্ট পরা তাদের জন্য আধুনিক যুগের মডেল। কিন্তু মুসলমানদের জন্য এটি পালন করা সুন্নত। যা অনেকের পক্ষে পালন করা সম্ভব হচ্ছে না। আর পশ্চিমারা তা সাদরে গ্রহণ করে মডেল হিসেবে নিয়েছেন।

আধুনিক যুগে এটি ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে ইতালিসহ বিভিন্ন দেশে। দেশটিতে প্রায় দশ বছর ধরে টাখনুর ওপর প্যান্ট পরছেন ইতালিয়ান উঠতি বয়সের ছেলে মেয়েরা। বয়সের দিক হিসেব করলে তের থেকে সাতাশ বছর বয়সী যুবকদের মাঝে এ মডেল বিদ্যমান তুলনামূলকভাবে বেশি।

এ বিষয়ে কয়েকজনের সঙ্গে আলাপে জানা যায়, প্যান্ট টাখনুর ওপর পরা কিভাবে এল তা জানি না তবে আমাদের কাছে এটা একটা সুন্দর মডেল। তাই আমরা টাখনুর ওপর প্যান্ট পরিধান করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি।

মানুয়েল নামে একজন ইতালিয়ান যুবক বলেন, দশ বছর ধরে টাখনুর ওপর প্যান্ট পরছি। আমার কাছে খুব ভালো লাগে। এটি আমার কাছে একটি মডেল।

উল্লেখ্য, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, পুরুষের শরীরের যে কোনো পোশাক টাখনুর নিচে ঝুলে পরা হারাম। পোশাক যদি টাখনুর নিচে ঝুলে যায়, তাহলে টাখনুর নিচের ওই অংশকে জাহান্নামের অংশ বলে ধরা হল। (বুখারি)

হজরত আবু যর রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘কিয়ামতের দিন আল্লাহ তাআলা তিন ব্যক্তির সঙ্গে কথা তো বলবেনই না বরং তাদের দিকে তাকিয়েও দেখবেন না। এমনকি তিনি তাদেরকে গুনাহ থেকে পবিত্র করবেন না বরং তাদের জন্য রয়েছে কষ্টদায়ক শাস্তি।

এমআরএম/আরআইপি

প্রবাস জীবনের অভিজ্ঞতা, ভ্রমণ, গল্প-আড্ডা, আনন্দ-বেদনা, অনুভূতি, স্বদেশের স্মৃতিচারণ, রাজনৈতিক ও সাংস্কৃতিক লেখা পাঠাতে পারেন। ছবিসহ লেখা পাঠানোর ঠিকানা - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :