যে সহজ ৪ আমলে মুক্তি পাবে নারী

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৪২ পিএম, ২০ অক্টোবর ২০২০

জাহান্নামে নারীদের সংখ্যা বেশি হবে বলেছেন বিশ্বনবি। তাই নারীর জান্নাত লাভে সহজ চারটি আমলের কথা বলেছেন বিশ্বনবি। নারীদের সহজে জান্নাত লাভের সহজ আমলগুলো কী কী? কেউ যদি সহজ আমলের মাধ্যমে জাহান্নামের আগুন থেকে মুক্তি পেয়ে জান্নাত লাভ করতে পারে, ওই ব্যক্তির জন্য এর চেয়ে বড় সফলতা আর কী হতে পারে?

রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, জাহান্নামে নারীদের সংখ্যা বেশি হবে। নারীদের সংখ্যা জাহান্নামে বেশি হওয়া প্রসঙ্গে হাদিসে এসেছে-
হজরত ইবনে আব্বাস রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘আমাকে জাহান্নাম দেখানো হয়েছে। সেখানকার অধিকাংশ অধিবাসী নারী। আর এটা এ কারণে যে তারা অস্বীকার করে। জিজ্ঞাসা করা হলো- তারা কি আল্লাহকে অস্বীকার করে? তিনি বললেন, তারা তাদের স্বামীদের অবদান অস্বীকার করে। তাদের অবস্থাটা এমন যে, তুমি সারা জীবন তাদের প্রতি দয়াসুলভ আচরণ করে যাচ্ছ আর তোমার কোনো একটি ত্রুটি পেলেই তোমাকে বলবে- তোমার মাঝে আমি কখনোই ভালো কিছু পাইনি।’ (বুখারি)

নিঃসন্দেহে মুমিন মুসলমান নারী-পুরুষের সর্বোচ্চ প্রত্যাশা হলো জান্নাত লাভ করা। কেউ যদি জাহান্নাম থেকে রক্ষা পায় আর জান্নাতে প্রবেশ করতে পারে তবে এর চেয়ে সফলতা আর কী হতে পারে? আল্লাহ তাআলা এ সফলতার বিষয়টি এভাবে তুলে ধরেছেন-
فَمَن زُحْزِحَ عَنِ النَّارِ وَأُدْخِلَ الْجَنَّةَ فَقَدْ فَازَ
‘তারপর যাকে জাহান্নাম থেকে দূরে রাখা হবে এবং জান্নাতে প্রবেশ করানো হবে; সেই হবে সফলকাম।’ (সুরা আল-ইমরান : আয়াত ১৮৫)

এ আয়াতের আলোকে জাহান্নাম থেকে মুক্তি লাভ করে জান্নাতের সফলতা লাভে সচেষ্ট থাকা মুমিন নারী-পুরুষের জন্য জরুরি কাজ। সহজ চারটি আমলের মাধ্যমে নারীরা সহজে জান্নাতে যাওয়ার সুযোগ পেতে পারেন। রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম নারীদের জান্নাত লাভের জন্য চারটি সহজ আমলের কথা বলেছেন।

হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন-
- যখন কোনো নারী পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করবে।
- রমজানের রোজা পালন করবে।
- নিজের ইজ্জত-আব্রুর (সতীত্বের) হেফাজত করবে এবং
- তার স্বামীর আনুগত্য করবে।
তখন তাকে বলা হবে, জান্নাতের যে দরজা দিয়ে চাও তুমি জান্নাতে প্রবেশ কর।’ (ইবনে মাজাহ)

এ কারণেই রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম নারীদের সতর্ক করেছেন যে, তারা যেন তাদের স্বামীদের কষ্ট না দেয়। হাদিসে এসেছে-
হজরত মুয়াজ ইবনে জাবাল রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেছেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ‘কোনো নারী তার স্বামীকে যখনই এই দুনিয়ায় কষ্ট দেয়; তখন জান্নাতের হুরাঈন তথা ডাগর চোখ বিশিষ্ট সুন্দরী হুরদের মধ্য থেকে তার স্ত্রীকে বলে- ‘তাকে কষ্ট দিও না; আল্লাহ তোমাকে ধ্বংস করুন! (নাউজুবিল্লাহ) সে তো তোমার কাছে একজন আগন্তুক মাত্র। অচিরেই সে তোমাকে ছেড়ে আমাদের মাঝে চলে আসবে।’ (তিরমিজি)

সুতরাং নারীদের উচিত, হাদিসে ঘোষিত সহজ চারটি আমল যথাযথ গুরুত্বের সঙ্গে মেনে চলা। স্বামীকে কষ্ট না দেয়া। হাদিসের ওপর যথাযথ আমল করা। নামাজ, রোজা পালন করা, ইজ্জত-আব্রুর হেফাজত করা এবং স্বামীর আনুগত্য করা। আল্লাহর কাছে বেশি বেশি এ প্রার্থনা করা-
اللَّهُمَّ إِنِّي أَعُوذُ بِكَ مِنْ عَذَابِ جَهَنَّمَ ، وَمِنْ عَذَابِ الْقَبْرِ ، وَمِنْ فِتْنَةِ الْمَحْيَا وَالْمَمَاتِ ، وَمِنْ شَرِّ فِتْنَةِ الْمَسِيحِ الدَّجَّالِ
উচ্চারণ : আল্লাহুম্মা ইন্নি আউজুবিকা মিন আজাবি ঝাহান্নাম; ওয়া মিন আজাবিল ক্ববর; ওয়া মিন ফিতনাতিল মাহ্ইয়া ওয়াল মামাতি, ওয়া মিন শাররি ফিতনাতিল মাসীহিদ দাঝঝাল।’ (মুসলিম)

অর্থ : ‘হে আল্লাহ! আমি তোমার কাছে জাহান্নামের আজব থেকে আশ্রয় চাই, কবরের আজাব থেকে আশ্রয় চাই, তোমার কাছে জীবন ও মৃত্যুর পরীক্ষা থেকে আশ্রয় চাই। দাজঝালের ফেতনার পরীক্ষা থেকে আশ্রয় চাই।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহর সব নারীকে হাদিসে ঘোষিত সহজ চারটি আমল যথাযথভাবে আদায় করার তাওফিক দান করুন। স্বামীর আনুগত্য করার তাওফিক দান করুন। জান্নাতের সফলতা লাভ করার তাওফিক দান করুন। আমিন।

এমএমএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]