সাফা ও মারওয়ায় সাঈ’র সুন্নাত তরিকা

ধর্ম ডেস্ক
ধর্ম ডেস্ক ধর্ম ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৪:২৪ এএম, ১৪ আগস্ট ২০১৭

আল্লাহ তাআলার অনন্য নিদর্শনসমূহের মধ্যে সাফা মারওয়া অন্যতম। হজ ও ওমরা পালনকারীদের জন্য এখানে দৌড়ানো আবশ্যক। সাফা মারওয়া পাহাড়দ্বয়ের সাঈ-তে রয়েছে সুনির্দিষ্ট স্থান, নিয়ম ও পদ্ধতি।

প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম-এর প্রদর্শিত পদ্ধতিতেই সাফা ও মারওয়া সাঈ সম্পন্ন করতে হবে। নতুবা সাঈ সম্পন্ন হবে না। আর ওয়াজিব তরকের জন্য দিতে দম বা কুরবানি।

সুন্নাত তরিকায় সাঈ সম্পন্ন করতে ‘বাবুস সাফা’ দিয়ে সাফা পাহাড়ের ওপরে ওঠতে হবে। সাফা পাহাড়ে ওঠে কাবার দিকে মুখ করে উভয় হাত কাঁধ পর্যন্ত তুলে পড়বে-

‘আবদাউ বিমা বাদাআল্লাহু বিহি ইন্নাস সাফা ওয়াল মারওয়াতা মিন শাআইরিল্লাহি’

অঃপর তিনবার হামদ ও ছানা পাঠ করা। তারপর উচ্চস্বরে তাকবির ও তাহলিল (আল্লাহু আকবার ও লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু) পাঠ করা। তারপর দুরুদ পাঠ করা। তারপর নিজের প্রয়োজনীয় দোয়া করা।

অতঃপর সাফা পাহাড় থেকে মারওয়া পাহাড়ের দিকে চলতে শুরু করবে।

মারওয়া পাহাড়ে গিয়ে হামদ ছানা, দরূদ ও দোয়া করে পুনরায় সাফা পাহাড়ের দিকে রওয়ানা করবে। এভাবে সাফা ও মারওয়া পাহাড়ের মধ্যে ৭ বার সাঈ করতে হবে।

সবুজ বাতি চিহ্নিত স্থানের দোয়া
লক্ষ্য রাখতে হবে, সাফা ও মারওয়া পাহাড়ের মধ্যে সবুজ বাতি চিহ্নিত স্থান রয়েছে; যেখানে শুধুমাত্র পুরুষরা দ্রুততার সঙ্গে অতিক্রম করবে। তবে এত দ্রুত অতিক্রম করা যাবে না যে, সঙ্গে কোনো নারী সঙ্গী থাকলে যেন হারিয়ে না যায়।

আর সবুজ বাতি চিহ্নিত নির্ধারিত স্থানটি দ্রুততার সঙ্গে অতিক্রম করার সময় এ দোয়াটি পড়া-

‘রাব্বিগফির ওয়ারহাম আনতাল আআ’যযু ওয়াল আকরাম।’

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে যথাযথভাবে সাফা ও মারওয়া পাহাড়ের সাঈ সম্পন্ন করার তাওফিক দান করুন। হজরত হাজেরা ও হজরত ইসমাইল আলাইহিস সালামের স্মৃতি ও তাদের হৃদয়ে অনুভূতিকে হৃদয়ে জগ্রত করে হজ ও ওমরাকে স্বার্থক করে তোলার তাওফিক দান করুন। আমিন।

এমএমএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]