প্রয়োজনে ঘাস খেয়ে থাকবেন শোয়েব আখতার, কেন?

স্পোর্টস ডেস্ক
স্পোর্টস ডেস্ক স্পোর্টস ডেস্ক
প্রকাশিত: ০৫:৫৮ পিএম, ০৮ আগস্ট ২০২০

বিভিন্ন সময় নানা বিষয়ে মন্তব্য করে এখন তুমুল আলোচিত পাকিস্তানের সাবেক স্পিডস্টার শোয়েব আখতার। এবার তিনি মন্তব্য করলেন, ‘প্রয়োজনে ঘাস খেয়েও থাকতে পারবেন।’

কেন? সে উত্তরট কিন্তু সঙ্গে সঙ্গেই দিয়ে দিলেন তিনি। ঘাস খেয়ে থেকে হলেও উদ্বৃত্ত টাকা দেশের (পাকিস্তানের) সেনাবাহিনীর জন্য বরাদ্দ বৃদ্ধিতে সাহায্য করতেন চান শোয়েব। পাকিস্তানের একটি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এমনই বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন সাবেক এই ফাস্ট বোলার।

এক সময় বল হাতে যার রানআপ দেখলেই প্রতিপক্ষ দলের ব্যাটসম্যানের কাঁপন শুরু হয়ে যেতো, সেই ‘রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস’ একটি সংবাদ মাধ্যমের কাছে মন্তব্য করেন, ‘যদি আল্লাহ আমায় সেই ক্ষমতা দিতেন, তাহলে আমি ঘাস খেয়ে থাকব, তবুও আমার দেশের সেনাবাহিনীর জন্য বাজেট বাড়াব। আমি সেনা প্রধানদের আমার সঙ্গে বসে সিদ্ধান্ত নিতে বলব। যদি বাজেট ২০ শতাংশ হয়, তাহলে আমি সেটাকে ৬০ শতাংশ করব। আমরা যদি পরস্পরকে অপমান করি, ক্ষতি আমাদের দেশেরই।’

শোয়েবের দাবি, তিনি দেশের হয়ে বুকে একটি বুলেট ধারণ করতে চেয়েছিলেন এবং সেজন্যই ১৯৯৯ সালে (কারগিল যুদ্ধের সময়) কাউন্টি খেলার প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন। কারণ কার্গিল যুদ্ধে অংশ নেয়ার ইচ্ছা ছিল তার।

বিস্ময়প্রকাশ করে পিন্ডি এক্সপ্রেস বলেন, তিনি বুঝতেই পারেন না কেন সাধারণ মানুষ এবং সেনাবাহিনী পরস্পরের সঙ্গে মিলেমিশে কাজ করতে পারে না!

পুরনো সম্পর্ক যেমনই হোক, সম্প্রতি ভারত এবং পাকিস্তানের রাজনৈতিক সম্পর্ক মোটেও ভালো যাচ্ছে না। নানা ইস্যুতেই বিরোধ লেগে রয়েছে দু’দেশের মধ্যে। সর্বশেষ কাশ্মীরের বিশেষ ক্ষমতা ৩৭০ ধারা রহিত করে দেশটিকে পুরোপুরি পরাধীন করে দেয়ার এক বছর পুর্তিতে পাকিস্তান বিষয়টাকে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে তোলার চেষ্টা করছে। যা নিয়ে আবার ভারত-পাকিস্তান টানাপড়েন তৈরি হয়েছে।

এরই মধ্যে এমন বিস্ফোরক মন্তব্য আসলো শোয়েব আখতারের মুখ থেকে। যা নিয়ে ভারতে তুমুল প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।’

আইএইচএস/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]