কমনওয়েলথে জেতা স্বর্ণপদক নিলামে তুলতে চান শ্যুটার আসিফ

বিশেষ সংবাদদাতা
বিশেষ সংবাদদাতা বিশেষ সংবাদদাতা
প্রকাশিত: ০৯:৪৪ পিএম, ২৪ এপ্রিল ২০২০

মাশরাফি, সাকিব, মুশফিকদের মতো এবার করোনা আক্রান্ত দেশের মানুষের পাশে দাঁড়াতে চান শ্যুটার আসিফ হোসেনও। ২০০২ সালে ম্যানচেস্টার কমনওয়েলথ গেমসে এয়ার রাইফেলে স্বর্ণজয়ী আসিফ তার সেই পদক নিলামে তুলতে চান।

ইতিহাস গড়া ঐ স্বর্ণপদক নিলামে বিক্রি করে করোনা আক্রান্তদের সাহায্য ও সহযোগিতা করবেন আসিফ। আজ (শুক্রবার) রাতে জাগো নিউজের সাথে আলাপে নিজের সে ইচ্ছের কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমি একটু আলোচনা করছিলাম, বলতে পারেন চিন্তা-ভাবনার পর্যায়ে ছিল। আমি বলছিলাম সাকিবের মত আমার ২০০২ সালে ম্যানচেস্টার কমনওয়েলথ গেমসের স্বর্ণপদক নিলামে তুলে করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে পারি কি না।’

‘সেটা আসলে ছিল একদমই প্রাথমিক পর্যায়ের ব্যাপার। তবে সেটা যে কোনোভাবেই হোক সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে চলেও এসেছে। অসুবিধা নেই। আলহামদুলিল্লাহ। যা হয় ভালোর জন্যই হয়। আল্লাহর ইচ্ছেতেই হয়েছে, আমি ধরে নিতে চাই। আল্লাহ যা করেন ভালোর জন্যই করেন।’

আসিফ মনে করেন, তার কাছে অমূল্য এই সম্পদটি নিলামে তুলেও যদি মানুষের কিছুটা ‍উপকার করা যায়, তবে কোনো আপত্তি নেই। তিনি বলেন, ‘আমি আমার ঐ কমনওয়েলথ গেমসে জেতা সেই গোল্ড মেডেলটা নিলামে তুলতে চাই। সেখান থেকে যদি কোন অ্যামাউন্ট পাওয়া যায়, তা দিয়ে কিছু করব।’

‘বাংলাদেশের এখন যে অবস্থা, অসহায় মানুষের এই আকুতির সময় আমি যদি তাদের পাশে দাঁড়াতে পারি, সেটাই হবে আসল কাজ। কারণ আমি চিন্তা করি যে ঐ স্বর্ণ পদকটা তো আমার দেশের মানুষদের জন্যই আমি জয় করে এনেছিলাম। সেটা আমার একার বা ব্যক্তিগত অর্জন ছিল না। গোটা বাংলাদেশেরই প্রাপ্তি ছিল। এখন দেশের মানুষের জন্য বয়ে আনা সেই পদক যদি দেশের মানুষের উপকারে আসে, সেটাই হবে পরম ভালো লাগার।’

পদকটি নিলামে তুলতে কিভাবে কি করা যায়, সেটির জন্য অভিজ্ঞদের সাহায্য চাইছেন আসিফ। তিনি বলেন, ‘আমি আসলে কিছুই জানি না কিভাবে কী করতে হবে। নিলামের জন্য কি করতে হবে সেটাও বুঝতেছি না । আমার আসলে একটা হেল্প দরকার, যাতে করে আমি আমার স্বর্ণ পদকটা নিলামে তুলতে পারি। আমি আশায় আছি একটু ভালোভাবে যদি নিলামে তোলা যায়, তাহলে হয়ত অর্থের পরিমাণ একটু বেশি পাবে। যেহেতু আমার দেশের মানুষের জন্যই এই উদ্যোগ, দেশের অসহায় মানুষের কাজে লাগলে নিজেকে ধন্য মনে করবো।’

এআরবি/এমএমআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]mail.com