সামাজিক নিরাপত্তা তহবিল থেকে অর্থ দিতে বিটিআরসিকে অনুরোধ

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০১:৩৫ পিএম, ২০ জুন ২০২২

ভয়াবহ বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত জনগণ ও গ্রাহকদের জন্য সামাজিক নিরাপত্তা তহবিল থেকে অর্থ বরাদ্দে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনকে (বিটিআরসি) অনুরোধ জানিয়েছে বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশন।

সোমবার (২০ জুন) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে সংগঠনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, গ্রাহকদের কাছ থেকে বিটিআরসি সামাজিক নিরাপত্তা তহবিলের নামে অর্থ আদায় করে থাকে। এ অর্থ কেবল প্রান্তিক পর্যায়ে বা দুর্গম এলাকায় নেটওয়ার্ক সম্প্রসারণে ব্যয় হয়।

তিনি বলেন, এ অর্থ সংগ্রহের মূল উদ্দেশ্য হলো- গ্রাহকদের স্বার্থ রক্ষা, নিরাপত্তা এবং দুর্যোগ মোকাবিলা। তাই সাম্প্রতিক বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সাধারণ মানুষ ও গ্রাহকদের স্বার্থ বিবেচনা করে এ ফান্ড থেকে অর্থ বরাদ্দ দেওয়া হোক।

মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, বন্যার কারণে সিলেট, সুনামগঞ্জ, নেত্রকোনা, শেরপুর কুড়িগ্রামের বিভিন্ন এলাকায় বিদ্যুৎ সংযোগের পাশাপাশি মোবাইল নেটওয়ার্ক বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। তবে এরই মধ্যে সেনাবাহিনী ও বিটিআরসির নিরলস পরিশ্রমের ফলে নেটওয়ার্ক সচল হতে যাচ্ছে।

সরকারি নির্দেশ মোতাবেক মোবাইল অপারেটরগুলো রেস্কিউ টিমের সঙ্গে যোগাযোগ করার জন্য কয়েকটি টোল ফ্রি নম্বর দিয়েছে। এ উদ্যোগেকে আমরা সাধুবাদ জানাই। তবে এতেই সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে এমনটি ভাবার কারণ নেই।

নেটওয়ার্ক নিরবচ্ছিন্ন রাখতে গিয়ে বিটিএস টাওয়ার ও ফাইবারের ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে। বিটিআরসিতে গ্রাহকদের সঞ্চিত সামাজিক নিরাপত্তা তহবিলে সঞ্চিত অর্থের পরিমাণ প্রায় ১ হাজার ৭০০ কোটি টাকা। ক্ষতিগ্রস্ত এলাকার জনগণের মধ্যে খাদ্য, চিকিৎসা, মুঠোফোনে নিরবচ্ছিন্ন যোগাযোগ ও ক্ষতিগ্রস্ত নেটওয়ার্কের মানোন্নয়নে এ ফান্ড থেকে বরাদ্দ দেওয়া হোক।

এইচএস/এসএএইচ/এমএইচআর/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]