আসল গিগাবাইট পণ্য পেতে স্মার্ট ওয়ারেন্টি দেখে কেনার আহ্বান

জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০৮:২৪ পিএম, ০৬ আগস্ট ২০২২

সংঘবদ্ধ একটি চক্র বাজারে নকল পণ্য আনছে বলে দাবি করেছে কম্পিউটার হার্ডওয়্যার প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান ‘গিগাবাইট’। এমতাবস্থায় স্মার্ট ওয়ারেন্টি দেখে আসল পণ্য কেনার আহ্বান জানিয়েছে প্রতিষ্ঠানটির দেশিয় পরিবেশ প্রতিষ্ঠান স্মার্ট টেকনোলজিস (বিডি) লিমিটেড।

শনিবার (৬ আগস্ট) রাজধানীর একটি হোটেলে ‘গিগাবাইট ইন্টেল ৬০০ সিরিজের মাদারবোর্ড বায়োস আপডেট’শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে এ আহ্বান জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন- গিগাবাইটের পরিবেশক প্রতিষ্ঠান স্মার্ট টেকনোলজিস (বিডি) লিমিটেডের ডিসট্রিবিউশন বিজনেস ডিরেক্টর জাফর আহমেদ, চ্যানেল সেলস ডিরেক্টর মুজাহিদ আলবেরুনী সুজন ও গিগাবাইটের কান্ট্রি হেড খাজা মো. আনাস খান।

উদ্বেগ প্রকাশ করে স্মার্ট টেকনোলজিস পরিচালক জাফর আহমেদ বলেন, কতিপয় অসাধু ব্যবসায়ী অবৈধ পথে ওয়্যারেন্টি বিহীন গিগাবাইট পণ্য বিভিন্ন দেশ থেকে আমদানি করে দেশের বাজারে বিক্রি করছেন। এতে শুধুমাত্র গিগাবাইট ও পরিবেশক হিসেবে শুধু আমরাই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি না, মূলত ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন ব্যবহারকারীরা।

‘তাই, আমি ব্যবহারকারীদের ও ক্রেতাদের অনুরোধ করব যে, আপনারা গিগাবাইটের যেকোনো পণ্য কেনার আগে অবশ্যই স্মার্ট ওয়্যারেন্টি স্টিকার দেখে ক্রয় করবেন। সন্দেহ থাকলে সরাসরি আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে জেনুইন চ্যানেলের পণ্য কী না তা যাচাই করে নিন।’

স্বাগত বক্তব্যে মুজাহিদ আল বেরুনী সুজন বলেন, গিগাবাইটের সঙ্গে স্মার্টে টেকনোলজিসের পথচলা প্রায় ১৮ বছরের। এ সময়ে গিগাবাইটের গুণগতমানের পণ্য আর আমাদের সেবা একত্র হয়ে দেশের বাজারে কাজ করছে।

খাজা মো. আনাস খান বলেন, ইন্টেলের নতুন প্রজন্মের প্রসেসরগুলোর পারফর্মেন্স সঠিকভাবে পাওয়ার জন্য গিগাবাইট তাদের ইন্টেল ৬০০ সিরিজের মাদারবোর্ডের বায়োস আপডেট প্রকাশ করেছে। গিগাবাইট সবসময়ই ব্যবহারকারীদের সর্বোত্তম কর্মক্ষমতা, সামঞ্জস্যতা ও অভিজ্ঞতা দিতে ইন্টেলের সঙ্গে কাজ করে।

‘এরই ধারাবাহিকতায় নতুন প্রজন্মের ইন্টেল প্রসেসরের সঙ্গে গিগাবাইটের রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট টিম জেড ৬৯০, বি ৬৬০, এইচ ৬১০ প্রভৃতি মাদারবোর্ডের জন্য ভালোভাবে যাচাইকৃত ও পরীক্ষাকৃত বায়োস কোড প্রস্তুত করেছে। নতুন প্রসেসর বাজারে আসার পর এটি ব্যবহারকারীদের প্ল্যাটফর্ম আপগ্রেডের ক্ষেত্রে দারুন সহায়তা করবে।’

তিনি আরও জানান, গিগাবাইট বায়োস, কিউ-ফ্ল্যাশ বা কিউ ফ্ল্যাশ প্লাস প্রযুক্তির মাধ্যমে একটি সিপিইউ, র‌্যাম এমনকি জিপিইউ ইনস্টল না করেই একটি বায়োস ফাইল ফ্ল্যাশ করতে পারে। সর্বশেষ বায়োস আপডেটগুলো গিগাবাইটের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।

সংবাদ সম্মেলনে বক্তারা জানান, গিগাবাইট পণ্যের অসাধু ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

একটা সময় ছিল, যখন গিগাবাইট বলতে সবাই শুধু মাদারবোর্ড ও গ্রাফিক্স কার্ডকে বুঝতেন। কিন্তু, বর্তমানে প্রতিষ্ঠানটি মাদারবোর্ড ও গ্রাফিক্স কার্ড ছাড়াও মনিটর, র‌্যাম, এসএসডি, কেসিং, পাওয়ার সাপ্লাই, কুলার, মাউস, কিবোর্ড প্রস্তুত করছে। তাছাড়া, গেমার ও প্রফেশনাল গ্রাফিক্স ডিজাইনারদের জন্য গিগাবাইট তৈরি করেছে শক্তিশালী ল্যাপটপ।

এইচএস/এসএএইচ/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]