দিল্লি মানালি শিমলা আগ্রা কলকাতা ভ্রমণের পরিকল্পনা

আরিফুল ইসলাম আরমান
আরিফুল ইসলাম আরমান আরিফুল ইসলাম আরমান
প্রকাশিত: ০১:২৭ পিএম, ১৪ জানুয়ারি ২০১৮
ছবি: উম্মে তাহিরা রুবি

আগ্রার তাজমহল দেখার স্বপ্ন অনেক দিনের। সে জন্য মাটির ব্যাংকে টাকাও জমিয়েছিলাম। শেষ পর্যন্ত ট্রাভেল এজেন্সির প্রতারণায় যাওয়া হয়নি। এতো ছিল ২০১৫ সালের শেষ দিকের ঘটনা। পরে সিলেটের তামাবিল সীমান্ত গিয়ে ঘুরে এসেছিলাম ভারতে শিলংয়ের দর্শনীয় স্থানগুলো। আশা ছিল ২০১৭ সালের শুরুতেই আবার ভারত ঘুরতে যাবো।

ভিসার আবেদন
ভিসার মেয়াদ শেষ। শ্যামলি সেন্টারে ই-টোকেন ছাড়াই এখন ভারতের ভিসা আবেদন জমা দেওয়া যায়। অনলাইনে পূরণকৃত আবেদনের প্রিন্ট কপি, এককপি পাসপোর্ট সাইজের ছবি, জাতীয় পরিচয়পত্রের ফটোকপি, বিদ্যুৎ বিলের ফটোকপি, ডলার অ্যানড্রোসমেন্ট, অফিসের অনাপত্তিপত্র (এনওসি), পাসপোর্টের ফটোকপির সঙ্গে বর্তমান ও পুরাতন পাসপোর্ট জমা দিয়ে ১০ দিনেই পেয়ে গেলাম ভারত ভ্রমণের ৬ মাসের ভিসা।

পরিকল্পনা
ভিসা পাওয়ার পর শুরু হলো কোথায় কোথায় ঘুরবো সে ভাবনা। সহায়তায় ফেসবুকের টিওবি গ্রুপ। ভ্রমণপিপাসুদের কাছে বেশ জনপ্রিয় এই গ্রুপ। ভ্রমণের যে কোন প্রয়োজনে এখানে কোন প্রশ্ন করলেই উত্তর মেলে। গ্রুপের নানা পোস্ট পড়ে তৈরি করে ফেললাম আমাদের ৭ দিনের ভারত ভ্রমণের পরিকল্পনা।

India Tour

কিভাবে যাবো?
ভাবনা কিভাবে যাবো? অফিস থেকে ছুটি পেয়েছিলাম ৭ দিন। এই ৭ দিনেই ঘুরতে হবে ভারতের দিল্লি, মানালি, শিমলা, আগ্রা ও কলকাতা। কম সময়ে এইগুলো জায়গা ঘুরতে আকাশপথই সবচেয়ে ভালো। এয়ার টিকিটের জন্য ওয়েবসাইট ভিজিট ও ঢাকার কয়েকটি ট্রাভেল এজেন্সিতে যোগাযোগ করলাম। ওয়েবসাইট ও এজেন্সিতের টিকিটের দামের পার্থক্য ছিল ২০০/৩০০ টাকার মত। ধানমন্ডির কসমস হলিডে থেকে স্পাইজেটে ঢাকা-কলকাতা, কলকাতা-দিল্লি, গো-এয়ারে দিল্লি-কলকাতা ও রিজেন্ট এয়ারে কলকাতা-ঢাকার টিকিট সংগ্রহ করে ফেললাম।

ভারত ভ্রমণের এয়ার টিকিট সংগ্রহের পর চিন্তায় এলো ভারতের ভেতর ঘুরবো কিভাবে? পরামর্শ পেলাম ভারতে ঘোরাঘুরির জন্য সবচেয়ে বেস্ট হল ট্রেন ও বাস। সেখানে ট্রেন ও বাসের টিকিট দিনেরটা নাকি দিনেই পাওয়া যায়। সিদ্ধান্ত নিলাম আমরাও তাই করবো।

হোটেল বুকিং
ভ্রমণসঙ্গী হিসেবে নারী সদস্য থাকায় হোটেল নির্বাচনের ক্ষেত্রে আমাদের বেশ চিন্তা ভাবনা করতে হয়েছে। ভারতের নানা অঞ্চলে হোটেল বুকিং করার জন্য ওয়োরুমস, মেকমাইট্রিপ, বুকিং.কম, এগোডাসহ কয়েকটি ওয়েবসাইট রয়েছে। সবগুলো ওয়েবসাইট দেখে কম খরচে ভালো হোটেল পেলাম ওয়োরুমসে। পরিকল্পনা অনুয়ায়ী হোটেল বুকিং দিয়ে দিলাম।

অপেক্ষা...
সব পরিকল্পনা যখন শেষ হল তখন চিন্তায় এলো কিভাবে এয়ারপোর্টে যাবো, কোন টার্মিনালে বিমান থাকবে, ইমিগ্রেশনে কিছু জানতে চাইবে কিনা, দিল্লিতে গিয়ে হোটেলে কিভাবে যাবো, সেখানে গিয়ে বাস-ট্রেনের টিকিট কিভাবে সংগ্রহ করবো? এরকম নানা প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে খুঁজতে অপেক্ষায় থাকলাম কবে আমাদের যাত্রা শুরু হচ্ছে?

এসব প্রশ্নের উত্তর থাকছে আগামী পর্বে। এ বিষয়ে আপনার কিছু জানার থাকলে এই লিংকে কমেন্টস করুন। 

এএ/পিআর

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - [email protected]

আপনার মতামত লিখুন :