দেশজুড়ে

হাতিয়ায় ঘোড়ার শোডাউনে নৌকার হামলা, পুলিশসহ আহত ১২

নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলায় ইউপি নির্বাচনের প্রচারণার প্রথম দিন নৌকার কর্মীদের হামলায় এক পুলিশ সদস্যসহ স্বতন্ত্র প্রার্থীর ১১ কর্মী আহত হয়েছেন। শনিবার (২৮ মে) বিকেল ৫টার দিকে হরণী ইউনিয়নের হাতিয়া বাজারে এ ঘটনা ঘটে।

Advertisement

আহত পুলিশ সদস্য ডিএসবির সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) মো. কাওছারকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আহত অন্যদেরকে বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।

স্থানীয়রা জানান, স্বতন্ত্র প্রার্থী মুশফিকুর রহমান মোরশেদের (ঘোড়া) গাড়ি বহরে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আখতার হোসেনের (নৌকা) লোকজন হামলা চালিয়ে এ ঘটনা ঘটায়।

মুশফিকুর রহমান অভিযোগ করে বলেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাবেক সংসদ সদস্য মোহাম্মদ আলী আমাকে হুমকি দিয়ে আসছিলেন। শনিবার বিকেলে আমার প্রথম শোডাউনে তার (মোহাম্মদ আলী) নির্দেশে নৌকার প্রার্থীর কর্মীরা অস্ত্র নিয়ে অতর্কিতে হামলা চালায়। এতে সালাউদ্দিন, মাহাবুব রহমান, ছিদ্দিক উল্যাহ, নিজাম, মো হানিফ, সানাউল্লাহসহ ১১ জন সমর্থক আহত হন। এ সময় সমর্থকদের ১০-১২টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে সাতটি মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নিয়ে যায় নৌকার প্রার্থীর কর্মীরা।

Advertisement

তবে নৌকা প্রার্থী আখতার হোসাইন অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, হামলায় তার কোনো সমর্থক জড়িত নয়। স্বতন্ত্র প্রার্থী ভোটের মাঠে সুবিধা নিতে তাকে ফাঁসানোর চেষ্টা হিসেবে পরিকল্পিতভাবে এ অভিযোগ করছেন।

অন্যদিকে সাবেক সংসদ সদস্য মোহাম্মদ আলী বলেন, আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করা হয়েছে। আপনারা (সাংবাদিক) তদন্ত করে সত্য ঘটনা লিখুন। হামলায় আমার কেউ জড়িত থাকলে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াবো।

হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আমির হোসেন বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে আহত পুলিশ সদস্য ও প্রার্থীর ভাইকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। অভিযোগ অনুযায়ী আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

দীর্ঘদিন মামলা জটিলতা কাটিয়ে হাতিয়ার হরণী ও চানন্দী ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে আগামী ১৫ জুন। এ নির্বাচনে দুই ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে ২০ জনসহ মোট ১১৩ জন প্রার্থীর মধ্যে শুক্রবার (২৭ মে) প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

Advertisement

ইকবাল হোসেন মজনু/এফএ/এমএস