ফের ঢাবি শিক্ষকের বিরুদ্ধে সহকর্মীকে মারধরের অভিযোগ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৯:৩৫ পিএম, ১৪ মার্চ ২০১৮

গত বছরের শেষের দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে আওয়ামীপন্থী নীল দলের এক সভায় দুই শিক্ষক মারামারিতে জড়িয়ে ছিলেন। প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে উভয় অংশ। তবে ওই ঘটনায় কোনো ধরনের ব্যবস্থা নেয়নি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

এবার বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য বিজ্ঞান ও গ্রন্থাগার ব্যবস্থাপনা বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ মেজবাহ-উল-ইসলামের বিরুদ্ধে একই বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলামকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে।

মারধরের বিচার চেয়ে বুধবার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামান ও প্রক্টর অধ্যাপক এ কে এম গোলাম রব্বানী বরাবর আবেদন করেছেন আনোয়ারুল ইসলাম।

তবে মারধরের বিষয়টি অস্বীকার করে ড. মুহাম্মদ মেজবাহ-উল-ইসলাম বলেছেন, ‘মারধর করার প্রশ্নই উঠে না।’

আনোয়ারুল ইসলাম তার আবেদনে উল্লেখ করেন, একাডেমিক কমিটির মিটিংয়ে না আসায় চেয়ারম্যান তার কাছে কৈফিয়ত জানতে চান। এ সময় চেয়ারম্যান অনেক ধরনের গালিগালাজ করে দরখাস্ত দিতে বলেন। তিনি (ভুক্তভোগী শিক্ষক) দরখাস্ত না দিয়ে ছুটির ফরম জমা দিবেন জানালে তখন অন্য সহকর্মীদের সামনে চেয়ারম্যান শার্টের কলার ধরে তাকে ধাক্কা দেন। এ সময় সহকর্মীরা চেয়ারম্যানকে আটকানোর চেষ্টা করে। এক সময় তারা চলে গেলে চেয়ারম্যান মেজবাহ তাকে লাথি-ঘুষি দেন। পরে বিভাগের অন্য শিক্ষকরা গাড়িতে করে তাকে বাসায় পাঠিয়ে দেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. একেএম গোলাম রব্বানী বলেন, এ বিষয়ে আমরা একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি।

এমএইচ/এমবিআর/এমএস

বিনোদন, লাইফস্টাইল, তথ্যপ্রযুক্তি, ভ্রমণ, তারুণ্য, ক্যাম্পাস নিয়ে লিখতে পারেন আপনিও - jagofeature@gmail.com

আপনার মতামত লিখুন :