জবিতে তামাকবিরোধী গণস্বাক্ষর কর্মসূচি

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) ‘কর বাড়ান তামাকের, জীবন বাঁচান আমাদের’ স্লোগানে তামাকবিরোধী গণস্বাক্ষর কর্মসূচি পালিত হয়েছে।

জবির ইংরেজি বিভাগ ও মাদকবিরোধী সংগঠন প্রত্যাশা-এর যৌথ উদ্যোগে বৃহস্পতিবার (২ মে) বেলা ১১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারের সামনে এই গণস্বাক্ষর কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে প্রথম স্বাক্ষর করে এই কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।

JnU-2

এ সময় মাদকবিরোধী সংগঠনের প্রত্যাশার পক্ষ থেকে তামাকের কুফল শিক্ষার্থীদের সামনে তুলে ধরা হয়। সংগঠনটির বক্তব্য হলো- নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য যেমন- দুধ-ডিম-কলার থেকে তামাকের দাম কম হওয়ার কারণে শিশু-কিশোর তথা দেশের তরুণ সমাজ সহজেই তামাকে আসক্ত হয়ে পড়ছে। আমরা মনে করি, মাদকাসক্তির প্রথম ধাপ হচ্ছে ধূমপান বা তামাক সেবন। দেশি-বিদেশি বিভিন্ন এজেন্সি দেশকে মেধাশূন্য ও অসুস্থ সমাজ তৈরির কূটকৌশল হিসেবে যুব সমাজকে তামাক নামক মাদকে আসক্ত করছে। দেশের যুব সমাজকে এর প্রভাব থেকে রক্ষা করতে হলে তামাক জাতীয় সকল পণ্যে স্পেসিফিক ট্যাক্স প্রথা চালু করা উচিত। যাতে তামাক পণ্য সাধারণ জনগোষ্ঠীর হাতের নাগালের বাইরে চলে যায়।

JnU-3

গণস্বাক্ষর কর্মসূচিতে অন্যান্যের মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ের লাইফ অ্যান্ড আর্থ সায়েন্স অনুষদের ডিন অধ্যাপক ড. কাজী সাইফুদ্দীন এবং ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. আবু জাফরসহ বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ২০৪০ সালের মধ্যে তামাকমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করছেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর তামাকমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে সরকারি-বেসরকারি সংস্থাগুলো একযোগে কাজ করে যাচ্ছে।

ইমরান খান/এমবিআর/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]ail.com