দুই দফা ছুটি বাড়ল ঢাবি শিক্ষার্থীদের, পরিচ্ছন্ন হচ্ছে ক্যাম্পাস

আল সাদী ভূঁইয়া
আল সাদী ভূঁইয়া আল সাদী ভূঁইয়া , ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
প্রকাশিত: ০২:২৯ পিএম, ২৫ মার্চ ২০২০

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের সুরক্ষার জন্য গত ১৮ মার্চ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ রাখার ঘোষণা দেয়া হয়। এরপর আরও দুই দফা বাড়িয়ে ৯ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি দেয়া হয়েছে। এই সময়টাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরীণ সব স্থান পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

দেখা গেছে, শিক্ষার্থী, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু), ঢাবি শিক্ষক সমিতির অনুরোধে গত ১৬ মার্চ উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বিশ্ববিদ্যালয়ের সব হলের প্রাধ্যক্ষ, অনুষদের ডিন, ইনস্টিটিউটের পরিচালক, বিভাগীয় চেয়ারম্যানদের নিয়ে করোনাভাইরাসের বিষয়ে এক জরুরি মতবিনিময় সভা করেন। সেখান থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব শিক্ষা কার্যক্রম ১৮ মার্চ থেকে ২৮ মার্চ পর্যন্ত স্থগিত করার ঘোষণা দেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘোষণার পর শিক্ষা মন্ত্রণালয় সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ১৮ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয়। সেই সঙ্গে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ছুটি ৩১ মার্চ পর্যন্ত বর্ধিত করে। এবং ১৯ মার্চ বৃহস্পতিবার শিক্ষার্থীদেরকে ২০ মার্চ শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টার মধ্যে হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়। নির্দেশনায় ৩১ মার্চ পর্যন্ত হল বন্ধ থাকার কথাও উল্লেখ করা হয়।

DU-2

সর্বশেষ বুধবার (২৫ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ বিভাগ থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, করোনাভাইরাস উদ্ভূত পরিস্থিতিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস-পরীক্ষা পূর্বঘোষিত ৩১ মার্চের পরিবর্তে আগামী ৯ এপ্রিল পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের অফিসসমূহ আগামী ৪ এপ্রিল পর্যন্ত বন্ধ থাকবে। তবে পানি, বিদ্যুৎ, গ্যাস, চিকিৎসা, নিরাপত্তা, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতাসহ জরুরি ব্যবস্থাপনা এই ছুটির আওতামুক্ত থাকবে। এই সময়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার জন্য সবার প্রতি বিশেষভাবে অনুরোধ করা হয়েছে।

আগামী ৯ এপ্রিল পর্যন্ত হল বন্ধ থাকবে কি-না, এ বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান জানান, ৯ এপ্রিল পর্যন্ত যেহেতু বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকবে সেহেতু হলও বন্ধ থাকবে।

পরিচ্ছন্ন হচ্ছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

করোনভাইরাসের সংক্রমণরোধে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধের এ সময়ে ব্যস্ত সময় পার করছে বিশ্ববিদ্যালয় ও সিটি করপোরেশনের পরিচ্ছন্নকর্মীরা। বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ডেঙ্গুসহ নানা বায়ুবাহিত রোগ থেকে সুরক্ষার জন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের আবাসিক হল, ভবন, অভ্যন্তরীণ রাস্তা জীবাণুমুক্ত করার জন্য জীবাণুনাশক ঔষধ ছিটানো হচ্ছে। মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল প্রবেশপথ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ছাড়া অন্য কেউ প্রবেশ করতে পারছে না।

গতকাল দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্মৃতি চিরন্তন চত্বরে (ভিসি চত্বর) ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ২১ নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আসাদুজ্জামান আসাদ, বিশ্ববিদ্যালয়ের এস্টেট কর্মকর্তা সুপ্রিয়া সাহাকে পানির ট্রাক দিয়ে জীবাণুনাশক ছিটাতে দেখা যায়।

DU-2

এ বিষয়ে কাউন্সিলর আসাদুজ্জামান আসাদ জাগো নিউজকে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সুরক্ষার জন্য সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে জীবাণুনাশক ঔষধ ছিটানো হচ্ছে। আবাসিক হল, ভবন, রাস্তা, মাঠ সব জায়গায় পর্যায়ক্রমে ঔষধ ছিটানো হবে। বিশ্ববিদ্যালয় খুলার পর শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা যেন মশার উপদ্রব ও ডেঙ্গুর প্রাদুর্ভাব থেকে মুক্তি পায় সেজন্য আমরা এ উদ্যোগ নিয়েছি। ডেঙ্গু মোকাবিলায় এবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় উদাহরণ হিসেবে থাকবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. এ কে এম গোলাম রব্বানী জাগো নিউজকে বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন কার্যক্রম এখন প্রায় বন্ধ। ক্লাস-পরীক্ষা ও হলগুলো বন্ধ থাকায় এখন বিশ্ববিদ্যালয়ের অভ্যন্তরে কোনো বহিরাগত যেন প্রবেশ না করতে পারে সেজন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান প্রবেশপথগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এ সময়টাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরোপুরি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজ চলবে।

তিনি আরও জানান, আইসোলেশন দুই ধরনের। একটি হলো সামাজিক আইসোলেশন অর্থ্যাৎ অন্য সমাজ থেকে নিজের সমাজকে আলাদা করা। আরেকটা হচ্ছে ব্যক্তিগত আইসোলেশন। যেটা ব্যক্তি থেকে নিজেকে বিচ্ছিন্ন রাখা। করোনাভাইরাস প্রতিরোধে এ দুই ধরনের আইসোলেশন প্রযোজ্য। আমরা আমাদের সুরক্ষা নিশ্চিত করার জন্য দুই ধরনের আইসোলেশন পালন করে যাচ্ছি। এবং সামনে অন্যান্য দুর্যোগ মোকাবিলা করার জন্যও আমরা নিজেদের প্রস্তুত করছি।

এমএসএইচ/পিআর

করোনা ভাইরাস - লাইভ আপডেট

১,৯৭,৬০,৬১১
আক্রান্ত

৭,২৮,০৩০
মৃত

১,২৬,৬৯,০১৮
সুস্থ

# দেশ আক্রান্ত মৃত সুস্থ
বাংলাদেশ ২,৫৫,১১৩ ৩,৩৬৫ ১,৪৬,৬০৪
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ৫১,৪৪,৭২৮ ১,৬৪,৯৮৬ ২৬,৩৩,৪৭০
ব্রাজিল ৩০,১২,৪১২ ১,০০,৪৭৭ ২০,৬৮,৩৯৪
ভারত ২১,৫২,০২০ ৪৩,৪৫৩ ১৪,৭৯,৮০৪
রাশিয়া ৮,৮২,৩৪৭ ১৪,৮৫৪ ৬,৯০,২০৭
দক্ষিণ আফ্রিকা ৫,৫৩,১৮৮ ১০,২১০ ৪,০৪,৫৬৮
মেক্সিকো ৪,৬৯,৪০৭ ৫১,৩১১ ৩,১৩,৩৮৬
পেরু ৪,৬৩,৮৭৫ ২০,৬৪৯ ৩,১৪,৩৩২
চিলি ৩,৭১,০২৩ ১০,০১১ ৩,৪৪,১৩৩
১০ কলম্বিয়া ৩,৬৭,১৯৬ ১২,২৫০ ১,৯৮,৪৯৫
১১ স্পেন ৩,৬১,৪৪২ ২৮,৭৫২ ১,৯৬,৯৫৮
১২ ইরান ৩,২৪,৬৯২ ১৮,২৬৪ ২,৮২,১২২
১৩ যুক্তরাজ্য ৩,১৩,৪৮৩ ৪৬,৫৬৬ ৩৪৪
১৪ সৌদি আরব ২,৮৭,২৬২ ৩,১৩০ ২,৫০,৪৪০
১৫ পাকিস্তান ২,৮৩,৪৮৭ ৬,০৬৮ ২,৫৯,৬০৪
১৬ ইতালি ২,৫০,১০৩ ৩৫,২০৩ ২,০১,৯৪৭
১৭ তুরস্ক ২,৩৯,৬২২ ৫,৮২৯ ২,২২,৬৫৬
১৮ আর্জেন্টিনা ২,৩৫,৬৭৭ ৪,৪৫০ ১,০৮,২৪২
১৯ জার্মানি ২,১৬,৮৭৮ ৯,২৬১ ১,৯৭,৪০০
২০ ফ্রান্স ১,৯৭,৯২১ ৩১,০১৭ ৮২,৮৩৬
২১ ইরাক ১,৪৭,৩৮৯ ৫,৩১০ ১,০৫,৫০৪
২২ ফিলিপাইন ১,২৬,৮৮৫ ২,২০৯ ৬৭,১১৭
২৩ ইন্দোনেশিয়া ১,২৩,৫০৩ ৫,৬৫৮ ৭৯,৩০৬
২৪ কানাডা ১,১৯,১৯৭ ৮,৯৭৬ ১,০৩,৫৪২
২৫ কাতার ১,১২,৬৫০ ১৮২ ১,০৯,৪৩৮
২৬ কাজাখস্তান ৯৭,৮২৯ ১,০৫৮ ৭১,৬০৯
২৭ মিসর ৯৫,৩১৪ ৪,৯৯২ ৫১,৬৭২
২৮ ইকুয়েডর ৯৩,৫৭২ ৫,৯১৬ ৭১,৬০৫
২৯ বলিভিয়া ৮৭,৮৯১ ৩,৫২৪ ২৮,১৩৯
৩০ চীন ৮৪,৫৯৬ ৪,৬৩৪ ৭৯,১২৩
৩১ ইসরায়েল ৮২,৩২৪ ৫৯৩ ৫৭,০৭১
৩২ সুইডেন ৮২,৩২৩ ৫,৭৬৬ ৪,৯৭১
৩৩ ওমান ৮১,৩৫৭ ৫০৯ ৭৩,৪৮১
৩৪ ইউক্রেন ৭৯,৭৫০ ১,৮৭৯ ৪৩,৬৫৫
৩৫ ডোমিনিকান আইল্যান্ড ৭৮,৭৭৮ ১,২৮৯ ৪২,৫৩৮
৩৬ বেলজিয়াম ৭২,৭৮৪ ৯,৮৬৬ ১৭,৭২৮
৩৭ পানামা ৭২,৫৬০ ১,৫৯১ ৪৬,৬৭৫
৩৮ কুয়েত ৭১,১৯৯ ৪৭৪ ৬২,৮০৬
৩৯ বেলারুশ ৬৮,৭৩৮ ৫৮৫ ৬৪,৭৪৪
৪০ সংযুক্ত আরব আমিরাত ৬২,৩০০ ৩৫৬ ৫৬,২৪৫
৪১ রোমানিয়া ৬০,৬২৩ ২,৬৫৯ ২৯,৮৭২
৪২ নেদারল্যান্ডস ৫৭,৯৮৭ ৬,১৫৭ ২৫০
৪৩ গুয়াতেমালা ৫৬,১৮৯ ২,১৯৭ ৪৪,০৭২
৪৪ সিঙ্গাপুর ৫৪,৯২৯ ২৭ ৪৮,৫৮৩
৪৫ পর্তুগাল ৫২,৫৩৭ ১,৭৫০ ৩৮,৩৬৪
৪৬ পোল্যান্ড ৫১,১৬৭ ১,৮০০ ৩৬,৪০৩
৪৭ হন্ডুরাস ৪৬,৩৬৫ ১,৪৬৫ ৬,৩৫৫
৪৮ নাইজেরিয়া ৪৫,৬৮৭ ৯৩৬ ৩২,৬৩৭
৪৯ জাপান ৪৩,৮১৫ ১,০৩৩ ৩০,১৫৩
৫০ বাহরাইন ৪৩,৬২৯ ১৬১ ৪০,৫৪৯
৫১ ঘানা ৪০,৫৩৩ ২০৬ ৩৭,৭০২
৫২ আর্মেনিয়া ৪০,১৮৫ ৭৮৫ ৩২,৩৯৫
৫৩ কিরগিজস্তান ৩৯,৫৭১ ১,৪৫৯ ৩১,০৬২
৫৪ আফগানিস্তান ৩৭,০৫৪ ১,৩১২ ২৫,৯৬০
৫৫ সুইজারল্যান্ড ৩৬,৪৫১ ১,৯৮৬ ৩১,৯০০
৫৬ আলজেরিয়া ৩৪,৬৯৩ ১,২৯৩ ২৪,০৮৩
৫৭ আজারবাইজান ৩৩,৪৮১ ৪৮৮ ৩০,০৫৬
৫৮ মরক্কো ৩২,০০৭ ৪৮০ ২২,১৯০
৫৯ উজবেকিস্তান ২৯,৬৫২ ১৮৭ ২১,০০৬
৬০ সার্বিয়া ২৭,৮৬৩ ৬৩২ ১৪,০৪৭
৬১ মলদোভা ২৭,৪৪৩ ৮৪১ ১৯,১০০
৬২ আয়ারল্যান্ড ২৬,৬৪৪ ১,৭৭২ ২৩,৩৬৪
৬৩ কেনিয়া ২৫,৮৩৭ ৪১৮ ১১,৮৯৯
৬৪ ভেনেজুয়েলা ২৪,১৬৬ ২০৮ ১২,৪৭০
৬৫ কোস্টারিকা ২২,৮০২ ২২৮ ৭,৫৮৯
৬৬ নেপাল ২২,৫৯২ ৭৩ ১৬,৩১৩
৬৭ ইথিওপিয়া ২২,২৫৩ ৩৯০ ৯,৭০৭
৬৮ অস্ট্রিয়া ২১,৯১৯ ৭২১ ১৯,৮১২
৬৯ অস্ট্রেলিয়া ২০,৬৯৮ ২৭৮ ১১,৩২০
৭০ এল সালভাদর ১৯,৯৭৮ ৫৩৬ ৯,৫১৫
৭১ চেক প্রজাতন্ত্র ১৮,১৪৬ ৩৯০ ১২,৭৬৪
৭২ ক্যামেরুন ১৭,৭১৮ ৩৯১ ১৫,৩২০
৭৩ আইভরি কোস্ট ১৬,৬২০ ১০৪ ১২,৮৯৩
৭৪ দক্ষিণ কোরিয়া ১৪,৫৬২ ৩০৪ ১৩,৬২৯
৭৫ ডেনমার্ক ১৪,৪৪২ ৬১৭ ১২,৮৪০
৭৬ ফিলিস্তিন ১৩,৯২৮ ৯৬ ৭,৭০৬
৭৭ বসনিয়া ও হার্জেগোভিনা ১৩,৬৮৭ ৩৯৪ ৭,৩৭৩
৭৮ বুলগেরিয়া ১৩,৩৪৩ ৪৪৫ ৭,৭১৮
৭৯ মাদাগাস্কার ১২,৯২২ ১৪১ ১০,৬০৪
৮০ সুদান ১১,৮৯৪ ৭৭৩ ৬,২৪৩
৮১ উত্তর ম্যাসেডোনিয়া ১১,৭৫৪ ৫২৩ ৭,৬২২
৮২ সেনেগাল ১১,০০৩ ২২৯ ৭,৩২৯
৮৩ নরওয়ে ৯,৫৬৮ ২৫৬ ৮,৮৫৭
৮৪ ড্যানিশ রিফিউজি কাউন্সিল ৯,৪৩৬ ২১৮ ৮,২৭৫
৮৫ মালয়েশিয়া ৯,০৭০ ১২৫ ৮,৭৭৫
৮৬ ফ্রেঞ্চ গায়ানা ৮,২০৪ ৪৭ ৭,৩২০
৮৭ গ্যাবন ৭,৯২৩ ৫১ ৫,৭০৪
৮৮ জাম্বিয়া ৭,৯০৩ ২০৩ ৬,৪৩১
৮৯ গিনি ৭,৮৭৫ ৫০ ৬,৮২৮
৯০ তাজিকিস্তান ৭,৭০৬ ৬২ ৭,২৩৫
৯১ হাইতি ৭,৫৯৯ ১৭৭ ৪,৮৯৩
৯২ ফিনল্যাণ্ড ৭,৫৬৮ ৩৩১ ৬,৯৮০
৯৩ লুক্সেমবার্গ ৭,১১৩ ১১৯ ৫,৮৪৮
৯৪ মৌরিতানিয়া ৬,৫১০ ১৫৭ ৫,৫২৭
৯৫ প্যারাগুয়ে ৬,৫০৮ ৬৯ ৫,১২৩
৯৬ আলবেনিয়া ৬,২৭৫ ১৯৩ ৩,২৬৮
৯৭ লেবানন ৬,২২৩ ৭৮ ২,০৪৩
৯৮ ক্রোয়েশিয়া ৫,৫৪৩ ১৫৭ ৪,৮১৭
৯৯ গ্রীস ৫,৪২১ ২১১ ১,৩৭৪
১০০ জিবুতি ৫,৩৩৮ ৫৯ ৫,০৮৩
১০১ লিবিয়া ৫,০৭৯ ১০৮ ৬৬০
১০২ ইকোয়েটরিয়াল গিনি ৪,৮২১ ৮৩ ২,১৮২
১০৩ মালদ্বীপ ৪,৭৬৯ ১৯ ২,৭৫৪
১০৪ হাঙ্গেরি ৪,৬৫৩ ৬০২ ৩,৪৯১
১০৫ সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক ৪,৬৪১ ৫৯ ১,৭১৬
১০৬ মালাউই ৪,৬২৪ ১৪৩ ২,৩২৯
১০৭ জিম্বাবুয়ে ৪,৪৫১ ১০২ ১,৩৪৫
১০৮ হংকং ৪,০০৮ ৪৭ ২,৭৫৫
১০৯ নিকারাগুয়া ৩,৯০২ ১২৩ ২,৯১৩
১১০ কঙ্গো ৩,৬৩৭ ৫৮ ১,৫৮৯
১১১ মন্টিনিগ্রো ৩,৫৪৯ ৬১ ২,২৯৬
১১২ থাইল্যান্ড ৩,৩৪৮ ৫৮ ৩,১৫০
১১৩ সোমালিয়া ৩,২২৭ ৯৩ ১,৭২৮
১১৪ ইসওয়াতিনি ৩,১২৮ ৫৬ ১,৫৬৫
১১৫ মায়োত্তে ৩,০৬৮ ৩৯ ২,৮৩৫
১১৬ কিউবা ২,৮৮৮ ৮৮ ২,৪৪২
১১৭ শ্রীলংকা ২,৮৪১ ১১ ২,৫৭৬
১১৮ নামিবিয়া ২,৮০২ ১৬ ৫৭৫
১১৯ কেপ ভার্দে ২,৭৮০ ২৯ ২,০৪২
১২০ স্লোভাকিয়া ২,৫৬৬ ৩১ ১,৮৬১
১২১ মালি ২,৫৬৫ ১২৫ ১,৯৬০
১২২ দক্ষিণ সুদান ২,৪৬৩ ৪৭ ১,১৭৫
১২৩ স্লোভেনিয়া ২,২৪৭ ১২৬ ১,৯২৭
১২৪ মোজাম্বিক ২,২৪১ ১৬ ৮৩২
১২৫ লিথুনিয়া ২,২৩১ ৮১ ১,৬৬৮
১২৬ সুরিনাম ২,২০৩ ২৯ ১,৫০৫
১২৭ এস্তোনিয়া ২,১৪৭ ৬৯ ১,৯৬১
১২৮ রুয়ান্ডা ২,১৩৪ ১,৩০০
১২৯ গিনি বিসাউ ২,০৩২ ২৭ ৯৪৪
১৩০ আইসল্যান্ড ১,৯৫৫ ১০ ১,৯০৭
১৩১ বেনিন ১,৯৩৬ ৩৮ ১,৬০০
১৩২ সিয়েরা লিওন ১,৮৯৫ ৬৮ ১,৪৪২
১৩৩ ইয়েমেন ১,৭৯৭ ৫১২ ৯১০
১৩৪ তিউনিশিয়া ১,৬৭৮ ৫১ ১,২৫৯
১৩৫ অ্যাঙ্গোলা ১,৫৭২ ৭০ ৫৬৪
১৩৬ নিউজিল্যান্ড ১,৫৬৯ ২২ ১,৫২৪
১৩৭ উরুগুয়ে ১,৩২৫ ৩৭ ১,০৯৫
১৩৮ লাটভিয়া ১,২৮৮ ৩২ ১,০৭০
১৩৯ উগান্ডা ১,২৬৭ ১,১১৫
১৪০ জর্ডান ১,২৪৬ ১১ ১,১৭৮
১৪১ লাইবেরিয়া ১,২৩৪ ৭৯ ৭১৪
১৪২ সাইপ্রাস ১,২৩৩ ১৯ ৮৫৬
১৪৩ জর্জিয়া ১,২১৬ ১৭ ৯৯৬
১৪৪ বুর্কিনা ফাঁসো ১,১৭৫ ৫৪ ৯৭৪
১৪৫ নাইজার ১,১৫৭ ৬৯ ১,০৫৭
১৪৬ সিরিয়া ১,১২৫ ৫০ ৩৩১
১৪৭ গাম্বিয়া ১,০৯০ ১৯ ১৪৬
১৪৮ টোগো ১,০৪৬ ২৩ ৭২১
১৪৯ মালটা ১,০৩৫ ৬৭৫
১৫০ জ্যামাইকা ৯৮৭ ১৩ ৭৪৫
১৫১ এনডোরা ৯৫৫ ৫২ ৮৩৯
১৫২ চাদ ৯৪২ ৭৬ ৮৩৯
১৫৩ বাহামা ৮৩০ ১৪ ৯৫
১৫৪ বতসোয়ানা ৮০৪ ৬৩
১৫৫ ভিয়েতনাম ৭৯৭ ১০ ৩৯৫
১৫৬ লেসোথো ৭৪২ ২৩ ১৭৫
১৫৭ ডায়মন্ড প্রিন্সেস (প্রমোদ তরী) ৭১২ ১৩ ৬৫১
১৫৮ সান ম্যারিনো ৬৯৯ ৪৫ ৬৫৭
১৫৯ রিইউনিয়ন ৬৭৫ ৬৩১
১৬০ চ্যানেল আইল্যান্ড ৫৯৭ ৪৮ ৫৫৫
১৬১ গায়ানা ৫৩৮ ২৩ ১৮৯
১৬২ আরুবা ৫০৯ ১১৪
১৬৩ তানজানিয়া ৫০৯ ২১ ১৮৩
১৬৪ তাইওয়ান ৪৭৯ ৪৪৩
১৬৫ বুরুন্ডি ৪০০ ৩০৪
১৬৬ কমোরস ৩৯৬ ৩৫৩
১৬৭ মায়ানমার ৩৫৯ ৩১১
১৬৮ মরিশাস ৩৪৪ ১০ ৩৩৪
১৬৯ মার্টিনিক ৩৩৬ ১৬ ৯৮
১৭০ আইল অফ ম্যান ৩৩৬ ২৪ ৩১২
১৭১ ফারে আইল্যান্ড ২৯৫ ১৯৩
১৭২ মঙ্গোলিয়া ২৯৩ ২৬০
১৭৩ গুয়াদেলৌপ ২৯০ ১৪ ১৮৬
১৭৪ ইরিত্রিয়া ২৮৫ ২৪৫
১৭৫ কম্বোডিয়া ২৪৬ ২১৫
১৭৬ ত্রিনিদাদ ও টোবাগো ২৪৩ ১৩৫
১৭৭ কেম্যান আইল্যান্ড ২০৩ ২০২
১৭৮ জিব্রাল্টার ১৯৭ ১৮৪
১৭৯ পাপুয়া নিউ গিনি ১৮৮ ৫৩
১৮০ সিন্ট মার্টেন ১৭৭ ১৭ ৮৬
১৮১ টার্কস্ ও কেইকোস আইল্যান্ড ১৭০ ৩৯
১৮২ বারমুডা ১৫৭ ১৪৪
১৮৩ বেলিজ ১৪৬ ৩২
১৮৪ ব্রুনাই ১৪২ ১৩৮
১৮৫ বার্বাডোস ১৩৮ ১০৮
১৮৬ মোনাকো ১২৮ ১০৫
১৮৭ সিসিলি ১২৬ ১২৫
১৮৮ ভুটান ১০৮ ৯৬
১৮৯ অ্যান্টিগুয়া ও বার্বুডা ৯২ ৭৬
১৯০ লিচেনস্টেইন ৮৯ ৮৫
১৯১ ফ্রেঞ্চ পলিনেশিয়া ৬৯ ৬২
১৯২ সেন্ট ভিনসেন্ট ও গ্রেনাডাইন আইল্যান্ড ৫৬ ৪৯
১৯৩ ব্রিটিশ ভার্জিন দ্বীপপুঞ্জ ৫৪
১৯৪ সেন্ট মার্টিন ৫৩ ৪১
১৯৫ ম্যাকাও ৪৬ ৪৬
১৯৬ কিউরাসাও ৩১ ৩০
১৯৭ ফিজি ২৭ ১৮
১৯৮ সেন্ট লুসিয়া ২৫ ২৪
১৯৯ পূর্ব তিমুর ২৫ ২৪
২০০ গ্রেনাডা ২৪ ২৩
২০১ নিউ ক্যালেডোনিয়া ২৩ ২২
২০২ লাওস ২০ ১৯
২০৩ ডোমিনিকা ১৮ ১৮
২০৪ সেন্ট কিটস ও নেভিস ১৭ ১৬
২০৫ গ্রীনল্যাণ্ড ১৪ ১৪
২০৬ মন্টসেরাট ১৩ ১৩
২০৭ ক্যারিবিয়ান নেদারল্যান্ডস ১৩
২০৮ ফকল্যান্ড আইল্যান্ড ১৩ ১৩
২০৯ ভ্যাটিকান সিটি ১২ ১২
২১০ পশ্চিম সাহারা ১০
২১১ জান্ডাম (জাহাজ)
২১২ সেন্ট বারথেলিমি
২১৩ সেন্ট পিয়ের এন্ড মিকেলন
২১৪ এ্যাঙ্গুইলা
তথ্যসূত্র: চীনের জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন (সিএনএইচসি) ও অন্যান্য।
করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]