এবার হাকালুকিজুড়ে ভাসছে মরা হাঁস


প্রকাশিত: ১০:১৬ এএম, ২০ এপ্রিল ২০১৭

আকস্মিক বন্যায় হাকালুকি হাওরের ধান নষ্ট হওয়ার পর মাছ মরে যাওয়ার ঘটনা ছিল সেখানকার মানুষের জন্য মড়ার ওপর খাঁড়ার ঘা। কিন্তু স্থানীয় মানুষের দুর্দশা এখানেই শেষ হয়নি। এবার হাওরে মারা যাচ্ছে হাঁস।

স্থানীয়রা বলছেন, ওই এলাকায় দূষিত মরা মাছ খেয়ে পোষা হাঁসগুলো মারা যাচ্ছে। এতে গরিব কৃষকসহ খামারিদের মধ্যে দেখা দিয়েছে উদ্বেগ। সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জ ও মৌলভীবাজারের কুলাউড়ায় হাকালুকি হাওরের পাশের অনেক মানুষের জীবিকা হাওরে হাঁস পালনের ওপর নির্ভরশীল। হাওরে বিচরণ করা এমন শত শত হাঁস এখন মারা যাচ্ছে।

কুলাউড়া উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. সাইফুদ্দিন জানান, হাঁসের মড়ক প্রতিরোধে ইতোমধ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। হাওরে চিকিৎসক টিম হাঁসের মধ্যে ভ্যাকসিনসহ ওষুধ প্রদানের কাজ শুরু করেছে। পাশাপাশি হাওরের পানিতে হাঁস না ছাড়ার জন্য খামারিসহ কৃষকদের সচেতনতামূলক পরামর্শ দেয়ার কাজ চলছে।

Hakaluki

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ডুবে যাওয়া ধানে ব্যবহৃত কীটনাশক ও সার পানিতে মিশে বিষক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। আধাপাকা ধান ও ধান গাছ পচে পানির গুণাগুণ নষ্ট করছে। পানিতে অক্সিজেনের পরিমাণ কমে গেছে। ফলে হাওরাঞ্চলের সর্বত্র মাছ মরে দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়েছে। এ হাওরের খাবার খেয়ে মারা যাচ্ছে হাঁসও।

সিলেটের কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক ড. মামুনুর রশিদ বলেন, বন্যার পানিতে আধাপাকা ধান পচে পানি বিষাক্ত হয়ে পড়েছে। এ হাওরের খাবার খেয়ে হাঁস মারা যাচ্ছে।

সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেটেরিনারি অ্যান্ড অ্যানিমেল সায়েন্স বিভাগের প্রধান ড. নাসরিন সুলতানাও হাঁস ও মাছের মৃত্যুর জন্য বিষক্রিয়াকেই দায়ী করেছেন। তার মতে ধান পচে এটা হয়েছে। 

তিনি বলেন, মরা মাছ বা হাঁস খেলে মানুষের বিশেষ করে শিশু ও বৃদ্ধদের ক্ষতি হতে পারে।

Hakaluki

ফেঞ্চুগঞ্জের মাইজবাগ এলাকার কামালউদ্দিন গত ১০ বছর ধরে হাঁস পালন করেন। তিনি জানান, এমনটা আগে কখনই ঘটতে দেখিনি। পানিতে সবখানে মরা হাঁস ভাসছে। তার ১৫০টি হাঁসের সবগুলোই মরে গেছে। এদিকে হাকালুকিতে মাছের মড়ক বন্ধে মৎস্য অফিসের উদ্যোগে চুন ও ওষুধ ছিটানোর কাজ অব্যাহত রাখা হয়েছে। 

হাওরবাসী জানায়, গত শনিবার রাতে কালবৈশাখীর পর বাতাসের সঙ্গে অসহনীয় দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়েছে। হাকালুকি হাওরে চৈত্র মাসের অকাল বন্যার পানি কমতে শুরু করেছে। তবে ধান পচে পানি দূষিত হয়ে তিন-চারদিন থেকে ব্যাপকহারে মাছের মড়কের পাশাপাশি হাঁসের মড়ক দেখা দেয়ায় ধান, মাছ ও হাঁস মরার পচা দুর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়েছে হাওরের বাতাসে।

এর আগে রবি ও সোমবার ও এলাকার হাওরে বোয়াল, পাবদা, টেংরা, বাইনসহ বিভিন্ন প্রজাতির ছোট-বড় মাছ মরে পানিতে ভেসে ওঠে।

এমএএস/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :