পাখিভ্যানে লুকিয়ে রাখা আড়াই কেজি স্বর্ণালঙ্কার উদ্ধার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি চুয়াডাঙ্গা
প্রকাশিত: ০২:৫৬ পিএম, ১২ আগস্ট ২০১৭ | আপডেট: ০১:০৮ পিএম, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৭
পাখিভ্যানে লুকিয়ে রাখা আড়াই কেজি স্বর্ণালঙ্কার উদ্ধার

চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার উথলী মোল্লাবাড়ি হঠাৎপাড়া নামক স্থানে আড়াই কেজি স্বর্ণের গহনাসহ সেন্টু শেখ নামে একজনকে আটক করেছে বিজিবি। আটককৃত স্বর্ণের মূল্য ১ কোটি ১৫ লাখ ৫০ হাজার টাকা।

শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আটক সেন্টু দামুড়হুদা উপজেলার পারকৃষ্ণপুর গ্রামের মৃত মজনু শেখের ছেলে।

বিজিবি জানায়, বড় ধরনের স্বর্ণের একটি চালান দামুড়হুদা থেকে জীবননগর হয়ে ঢাকাতে পাচার করা হবে এমন একটি গোপন সংবাদ পায় বিজিবি চুয়াডাঙ্গা-৬ ব্যাটালিয়ন। এমন তথ্যের ভিত্তিতে বিজিবি গত ৪ দিন ধরে সীমান্তে কড়া পাহারা শুরু করে।

এক পর্যায়ে শনিবার বেলা সাড়ে ১০টার দিকে চুয়াডাঙ্গা-৬ ব্যাটালিয়নের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর লুৎফুল কবীরের তত্ত্বাবধানে ও নায়েব সুবেদার তোতা মিয়ার নেতৃত্বে দর্শনা এবং নিমতলা বিজিবি ক্যাম্পের সদস্যরা যৌথভাবে জীবননগর উপজেলার মোল্লাবাড়ি হঠাৎপাড়া নামক স্থানে অভিযান পরিচালনা করে একটি পাখিভ্যান (ব্যাটারিচালিত ভ্যান) আটক করে। পরে ভ্যানটি তল্লশি করে ভ্যানের নিচে অভিনব কায়দায় রাখা ৪টি কৌটার মধ্যে লুকিয়ে রাখা ২ কেজি ৪শ গ্রাম স্বর্ণের গহনা উদ্ধার করা হয়।

আটক ভ্যানচালক সেন্টু শেখ জানান, দামুড়হুদা বাসস্ট্যান্ড থেকে ২ যুবক তার সঙ্গে ৫০০ টাকার চুক্তিতে তাদের পাখিভ্যানটি জীবননগর পৌঁছে দিতে বলে। চুক্তি মোতাবেক ওই পাখিভ্যানটি নিয়ে জীবননগরে আসাকালে বিজিবি তা আটক করে এবং স্বর্ণের গহনা উদ্ধার করে। ওই যুবকদের তিনি চেনেননা বলে জানান।

চুয়াডাঙ্গা-৬ ব্যাটালিয়নের ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক মেজর লুৎফুল কবীর পাচারকালে স্বর্ণের গহনা আটকের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

সালাউদ্দীন কাজল/এফএ/আরআইপি