বাগেরহাটে এমপির মেয়েকে ছুরিকাঘাত

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি বাগেরহাট
প্রকাশিত: ০৩:৫৬ পিএম, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৭

বিজয় দিবসের অনুষ্ঠান দেখে বাড়ি ফেরার পথে দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে বাগেরহাটের সংরক্ষিত নারী সংসদ সদস্য হ্যাপি বড়ালের মেয়ে ব্যারিস্টার অদিতি বড়াল (২৭) আহত হয়েছেন।

শনিবার সন্ধ্যায় বাগেরহাট শহরের কে আলী রোডের আমলাপাড়া বিদ্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে। তাকে উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে শহরের আমলাপাড়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে জেলা মহিলা ক্রীড়া সংস্থার ব্যবস্থাপনায় ক্রীড়া অনুষ্ঠান শেষে বিকেলে অদিতা বড়াল বাসায় ফিরছিল।

আমলাপাড়া স্কুল থেকে প্রায় দুইশ গজ দূরে শালতলাস্থ নিজ বাড়িতে ফেরার পথে দুর্বৃত্তরা তার পেটে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে তাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ঘটনার ৮ মাস আগে শালতলাস্থ মহিলা সংসদ সদস্য হ্যাপি বড়ালের বাড়িতে দুর্বৃত্তরা হামলা চালায়। ওই সময় এমপি হ্যাপি বড়ালের এই মেয়ে আহত হয়।

উল্লেখ্য, ২০০০ সালের ২০ আগস্ট বাগেরহাট শহরের প্রাণকেন্দ্র সাধনার মোড়ে প্রকাশ্য দিবালোকে অদিতার বাবা কালীদাস বড়ালকে চরমপন্থীরা গুলি করে হত্যা করে। কালীদাস বড়াল ছিলেন বাগেরহাট জেলা হিন্দু-বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি ও চিতলমারী উপজেলার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান।

শনিবার রাতে বাগেরহাটের পুলিশ সুপার পংকজ চন্দ্র রায় সদর হাসপাতালে প্রয়াত কালীদাস বড়ালের আহত মেজো মেয়ে অদিতা বড়ালকে দেখতে যান।

এ সময় তিনি বলেন, দুর্বৃত্তদের ছুরিকাঘাতে তার শরীরের বেশি ক্ষতি না হলেও এই পরিবারের ওপর বার বার কেন এ ধরনের হামলা হচ্ছে তা খতিয়ে দেখা হবে।

নারী সংসদ সদস্য হ্যাপি বড়াল সাংবাদিকদের বলেন, আমার স্বামী কালিদাস বড়ালের হত্যাকারীদের বিচার হওয়ায় আসামিরা ক্ষুব্ধ। তারা আমাদের সব সময় হত্যার পরিকল্পনা করে আসছে। আমার স্বামীর জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত করেছেন। আমি সাংসদ হওয়ায় দলের অনেকেই তা ভালোভাবে নিতে পারেনি। এ কারণেও আমার মেয়ের ওপর হামলা হয়ে থাকতে পারে। আমি ও আমার পরিবার এখন নিরাপত্তাহীন বলেও জানান তিনি।

শওকত আলী বাবু/এএম/আরআইপি