আমরা কাজ দেখিয়ে ভোট নিতে চাই : ওবায়দুল কাদের

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি পঞ্চগড়
প্রকাশিত: ০৪:০৯ পিএম, ০৯ জানুয়ারি ২০১৮ | আপডেট: ০৪:১৭ পিএম, ০৯ জানুয়ারি ২০১৮

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি কথামালার রাজনীতি করে, আর আওয়ামী লীগ কাজের রাজনীতি করে। আমরা এসেছি শীতার্তদের জন্য কম্বল নিয়ে। আমরা কাজ দেখিয়ে ভোট নিতে চাই।

মঙ্গলবার সকালে পঞ্চগড় সদর উপজেলার বিলুপ্ত গাড়াতি ছিটমহলে শীতার্ত মানুষের মধ্যে কম্বল ও নগদ টাকা বিতরণ অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, বিএনপি কেন নির্বাচনে আসতে চায় না তা আমরা জানি। জাতীয় সংসদ নির্বাচনের এখনো ১০/১১ মাস বাকি আছে। কিন্তু এখনি সারাদেশে নৌকার জোয়ার উঠেছে। নির্বাচনে হেরে যাওয়ার আশঙ্কায় বিএনপি আবল-তাবল বকছে।

ওবায়দুল কাদের বলেন, জাতীয় সংসদ নির্বাচন এ বছরের মধ্যেই হবে। তবে রংপুরের মতো অবাধ ও সুষ্ঠুভাবে হবে। এজন্য নির্বাচন কমিশনকে শেখ হাসিনা সরকার সব ধরনের সহযোগিতা করবে। এনিয়ে ফখরুল সাহেবদের ভয় পাওয়ার কিছু নেই।

বিলুপ্ত ছিটমহলবাসীদের তিনি বলেন, শেখ হাসিনা মানুষের কষ্ট নিয়ে রাজনীতি করেন না। তিনি যতদিন ক্ষমতায় থাকবেন ততদিন কোনো লোক কষ্ট করবে না। শেখ হাসিনা সরকার বিলুপ্ত ছিটমহলবাসীদের স্বাধীন দেশের নাগরিক করেছেন। আপনাদের কথা ভেবেই তিনি এ কম্বল পাঠিয়েছেন। এখানেই শেষ নয়, তিনি যতদিন থাকবেন ততদিন সাহায্য পাবেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, এবারের শীত ৫০ বছরের রেকর্ড ভঙ্গ করেছে। এ শীতে বিএনপি কোথায়? তারা আসবেন ফটোসেশন করতে। কক্সবাজারে আর উত্তরাঞ্চলের বন্যায় বিএনপি মহাসচিব শুধুই ফটোসেশন করেছিলেন।

তিনি বলেন, শীতের শুরুতেই এ জেলায় ২৮ হাজার কম্বল পৌঁছেছে। আরও সাড়ে ৫ হাজার কম্বল এবং ১১ লাখ নগদ টাকা নিয়ে এসেছি।

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক এমপি, খালিদ মাহমুদ চেীধুরী এমপি, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণবিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, পঞ্চগড়-২ আসনের সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নুরুল ইসলাম সুজন, পঞ্চগড়-১ আসনের সংসদ সদস্য নাজুমল হক প্রধান, প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের এটুআই প্রকল্পের জনপ্রেক্ষিত কর্মকর্তা নাইমুজ্জামান মুক্তা, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার সাদাত সম্রাট উপস্থিত ছিলেন।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের শীতার্তদের একটি করে কম্বল এবং নগদ দুইশত টাকা করে প্রদান করেন। পরে তিনি বোদা হাইস্কুল মাঠে কম্বল বিতরণ শেষে ঠাকুরগাঁওয়ের উদ্দেশে রওয়ানা দেন। এ বিতরণ কার্যক্রমের আওতায় পর্যায়ক্রমে সদর উপজেলার হাফিজাবাদ, অমরখানা এবং হাড়িভাসা ইউনিয়নসহ বোদা পৌরসভা এলাকার সাড়ে ৫ হাজার শীতার্তের প্রত্যেককে একটি করে কম্বল এবং নগদ ২০০ টাকা করে প্রদান করা হবে।

সফিকুল আলম/আরএআর/আরআইপি

আপনার মতামত লিখুন :