তানিম হত্যা : পরিবার নয়, মামলা করলেন বন্ধু রাহী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক সিলেট
প্রকাশিত: ১২:৫৪ এএম, ১১ জানুয়ারি ২০১৮

সিলেট মহানগরের টিলাগড় এলাকায় ছাত্রলীগকর্মী তানিম খান খুনের তিন দিনের মাথায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে পরিবারের কোনো সদস্য নয়, মামলা করেছেন তানিমের বন্ধু দেলোয়ার হোসেন রাহী। বুধবার রাত সাড়ে ১১টায় শাহপরান থানায় মামলা (নম্বর ৪) দায়ের করেন রাহী। মামলায় ২৯ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাত আরও ৪/৫ জনকে আসামি করা হয়েছে।

মামলার এজহারনামীয় আসামিদের মধ্যে রয়েছেন- সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক, সিটি কাউন্সিলর আজাদুর রহমান আজাদের ভাতিজা সাদিকুর রহমান আজলা, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি অনিরুদ্ধ পলাশ মজুমদার, সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজান, ছাত্রলীগ নেতা জয়নাল আবেদীন ডায়মন্ড, রুহেল আহমদ, মুনতাসির আলী ও তজম্মুল আলীসহ ২৯ জন।

আসামিদের সবাই সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক আজাদুর রহমান আজাদ অনুসারী ছাত্রলীগকর্মী। এর মধ্যে ডায়মন্ড ও রুহেল বর্তমানে জেলহাজতে রয়েছেন। মামলার অন্য আসামিরা পলাতক।

নিহত তানিম সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের যুব ও ক্রীড়াবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট রনজিত সরকারের অনুসারী। তানিম হত্যার পেছনে নাম আসে আজাদুর রহমান আজাদ অনুসারী ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের। সিলেট নগরের টিলাগড় এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে গত রোববার গলায় ও পিঠে ছুরিকাঘাত করে হত্যা করা হয় তানিমকে।

মামলার দায়েরের সত্যতা নিশ্চিত করে সিলেট মহানগর পুলিশের শাহপরাণ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আক্তার হোসেন জানান, নিহত ছাত্রলীগকর্মী তানিমের বন্ধু দেলোয়ার হোসেন রাহী বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেন।

মামলা দায়েরে বিলম্ব হওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ঘটনার পর তানিমের পরিবারের কেউই থানায় অভিযোগ না করায় মামলাটি নথিভুক্ত করতে বিলম্ব হয়। বুধবার রাতে তানিমের বন্ধুর কাছ থেকে অভিযোগ পেয়েই মামলাটি নথিভুক্ত করা হয়েছে। পুলিশ মামলার এজহারনামীয় অাসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রেখেছে।

উল্লেখ্য, অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জের ধরে রোববার (৭জানুয়ারি) রাত পৌনে ৯টার দিকে টিলাগড় পয়েন্টে প্রতিপক্ষের নেতাকর্মীদের ছুরিকাঘাতে খুন হন সিলেট সরকারি কলেজ ছাত্রলীগ নেতা তানিম আহমদ খান। তিনি ওসমানীনগর উপজেলার নিজ বুরুঙ্গা গ্রামের ইসরাইল খানের ছেলে।

ছামির মাহমুদ/বিএ

আপনার মতামত লিখুন :