পুলিশ কর্মকর্তার কাছেও টাকা চাইলো প্রশ্নফাঁসকারী

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক খুলনা
প্রকাশিত: ০৮:৩১ পিএম, ০৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮
পুলিশ কর্মকর্তার কাছেও টাকা চাইলো প্রশ্নফাঁসকারী

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নফাঁসের অভিযোগে ৩ যুবককে গ্রেফতার করেছে খুলনার কয়রা থানা পুলিশ। গ্রেফতাররা জানায়, পরীক্ষার আগে ফেসবুকে ‘বড় ভাই’ নামে একটা আইডি থেকে তাদের প্রশ্নফাঁস করে দেয়া হচ্ছে।

গ্রেফতাররা হলেন- মঞ্জুরুল ইসলাম (১৮), মুন্না সরদার (১৮) ও মোখলেছুর রহমান রানা (১৮)। গ্রেফতার ৩ যুবকের বাড়ি উপজেলার ৪ নং কয়রা গ্রামে। কয়রা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এনামুল হক বিয়ষটি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কয়রা মদিনাবাদ মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সামনে ওই তিন যুবক ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারের মাধ্যমে প্রশ্নফাঁসকালে তাদের হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়।

পরে পুলিশ ৩ যুবককে কয়রা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) শিমুল কুমার সাহার কার্যালয়ে নিয়ে গেলে নির্বাহী কর্মকর্তা তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে।

এ সময় তারা জানায়, বড় ভাই নামের একটা ফেসবুক আইডি থেকে তারা এ প্রশ্ন পেয়েছে। সেই সঙ্গে প্রতিটি প্রশ্নের জন্য ওই বড় ভাই বিকাশের মাধ্যমে এক হাজার টাকা দাবি করে।

গ্রেফতার মঞ্জুরুল ইসলাম জানান, শনিবার পরীক্ষা শুরুর আগে সকাল ৯টা ৮মিনিটে বড় ভাইয়ের কাছ থেকে পাওয়া এ প্রশ্ন ৫/৬ জন পরীক্ষার্থীকে ফ্রি দিয়েছেন মঞ্জুরুল।

এ সময় ইউএনও’র কার্যালয়ে বসে মোবাইলের ম্যাসেঞ্জারের মাধ্যমে কয়রা থানা পুলিশের এক কর্মকর্তা পরীক্ষার্থী পরিচয় দিয়ে ফেসবুকের ওই বড় ভাইয়ের কাছে ইংরেজি পরীক্ষার প্রশ্ন পাওয়া যাবে কিনা জানতে চান। তাৎক্ষণিক ওই বড় ভাই হ্যা বলে উত্তর দেন। সেই সঙ্গে ইংরেজি প্রশ্ন দেয়ার মূল্য বাবদ ১ হাজার টাকা বিকাশের মাধ্যমে পাঠানোর জন্য একটি নম্বর দেন। বিষয়টি দেখে রীতিমতো চমকে ওঠেন ওই পুলিশ কর্মকর্তা এবং ইউএনও। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত গ্রেফতারকৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ চলছে বলেও জানান ওসি।

এদিকে, এ বিষয়টি নিয়ে কয়রা সদরে ব্যাপক আলোচনার সৃষ্টি হয়েছে। পরীক্ষার আগে প্রশ্ন পাওয়ার বিয়ষটি এখন সবার মুখে মুখে ঘুরছে।

আলমগীর হান্নান/এএম/আরআইপি