ওসমানদের ভয় পাওয়ার কারণ নেই : আইভী

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৮:৪২ এএম, ০৮ মার্চ ২০১৮

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেছেন, ওসমান পরিবার দ্বারা যেসব হত্যাকাণ্ড ঘটেছে তার বিচার অবশ্যই একদিন হবে। ওসমান পরিবার এতই বেশি শক্তিশালী যে, দল যখন ক্ষমতায় থাকে তখন প্রশাসনকে ব্যবহার করে এমন কোনো কাজ নেই যে তারা এ শহরে ঘটায় না। কিন্তু এ শহরের মানুষও প্রচণ্ড সাহসী হয়ে উঠেছে। আপনারা সবাই সাহস ধরে রাখবেন। ওসমানদের ভয় পাওয়ার কোনো কারণ নেই। আর শুধু ত্বকী নয়, চঞ্চল, মিঠুসহ যতগুলো হত্যাকাণ্ড ঘটেছে তার বিচার আমরা চাই।

বুধবার বিকেলে শহরের দেওভোগে নারায়ণগঞ্জ চারুকলা ইনস্টিটিউটের পাশে নির্মাণাধীন লেক ও ওয়াকওয়ের সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আয়োজনে নারায়ণগঞ্জের মেধাবী ছাত্র তানভীর মুহাম্মদ ত্বকী হত্যাকাণ্ডের ৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে শিশু সমাবেশ, চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা ও পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, ত্বকী তার নিজের কারণে খুন হয়নি। ত্বকীকে হত্যা করে তার বাবাকে শাস্তি প্রদানসহ সমগ্র নারায়ণগঞ্জবাসীকে স্তব্ধ করে রাখার চেষ্টা করা হয়েছিল। ত্বকী শুধু রফিউর রাব্বী বা রওনক রেহেনার সন্তান নয়। ত্বকী আমাদের সকলের সন্তান। এ সন্তানের হত্যার প্রতিবাদ আমরা করে যাবো যতক্ষণ পর্যন্ত ন্যায় বিচার না পাব।

আইভী বলেন, ত্বকী হত্যার আজ ৫ বছর। তারও আগে যদি নারায়ণগঞ্জের ইতিহাস দেখা যায় তাহলে হত্যাকাণ্ড আরো হয়েছে। কিন্তু এভাবে কেউ আন্দোলন চালিয়ে যেতে পারেনি বা ত্বকী যে একটি প্রতিবাদের নাম হয়ে দাঁড়াবে এটা হয়তো ঘাতকেরা কোনো দিন চিন্তাও করেনি। তাই আমি ঘাতকদের বলব, ওইদিন আর বেশি দূরে নেই যেদিন বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড়াবেন কি দাঁড়াবেন না সেটা আমি ঠিক জানি না। কিন্তু জনতার আদালতে আপনাদের দাঁড়াতে হবেই হবে। এটা থেকে আপনারা কোনো নিস্তার পাবেন না।

সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের আহ্বায়ক রফিউর রাব্বীর সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন, লেখক ড. হায়াৎ মামুদ, চিত্রশিল্পী মোখলেছুর রহমান, সন্ত্রাস নির্মূল ত্বকী মঞ্চের সদস্য সচিব হালিম আজাদ, নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি মাহবুবুর রহমান মাসুম, নারায়ণগঞ্জ সাংস্কৃতিক জোটের উপদেষ্টা ভবানী শংকর রায়, নারায়ণগঞ্জ চারুকলা ইনস্টিটিউটের অধ্যক্ষ শামসুল আলম আজাদ প্রমুখ।

অনুষ্ঠান শেষে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের হাতে ক্রেস্ট, সনদ ও পুরস্কার তুলে দেন অতিথিরা। এছাড়াও ত্বকী হত্যাকাণ্ডের উপর একটি প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন করা হয়।

শাহাদাৎ হোসেন/এফএ/আরআইপি

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]