ঢাকা-মানিকগঞ্জ রুটে পরিবহন ধর্মঘট, প্রতিহতের ঘোষণা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি মানিকগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৫:৩৫ পিএম, ২৭ মার্চ ২০১৮

চাঁদাবাজিবন্ধসহ ৫ দফা দাবিতে আগামীকাল বুধবার ঢাকা-মানিকগঞ্জ রুটে ৪৮ ঘণ্টার পরিবহন ধর্মঘট ডেকেছে ঢাকা (গাবতলী) জেলা মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদ।

এদিকে, রাজপথে থেকে এই ধর্মঘট প্রতিহতের ঘোষণা দিয়েছে মানিকগঞ্জ জেলা বাস, মিনিবাস, মাইক্রোবাস, অটোটেম্পু ওনার্স গ্রুপ ও জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের নেতারা।

মঙ্গলবার দুপুরে ধর্মঘটের প্রতিবাদে আয়োজিত বিক্ষোভ সমাবেশ ও সংবাদ সম্মেলনে সংগঠন দুটির নেতারা এ ঘোষণা দেন।

দুপুরে মানিকগঞ্জ কেন্দ্রীয় বাস টার্মিনালে জেলা বাস, মিনিবাস, মাইক্রোবাস, অটোটেম্পু ওনার্স গ্রুপের সভাপতি জাহিদুল ইসলাম জাহিদের সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন- জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. রমজান আলী, সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট আব্দুল সালাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আফম সুলতানুল আজম আপেল, সাংগঠনিক সম্পাদক সুদেব সাহা, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি লিয়াকত আলী ভান্ডারি, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ইসরাফিল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক আফছার আলী, পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি মোনায়েম খান, শিবালয় উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আলী আহসান মিঠু, জেলা শ্রমিক ইউনিয়নের আহ্বায়ক আব্দুল জলিল প্রমুখ।

পরে ধর্মঘটের প্রতিবাদে মানিকগঞ্জ প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে নেতৃবৃন্দ। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে জেলা সড়ক পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের আহ্বায়ক মো. আ. জলিল বলেন, ক্ষমতাসীন দলের নাম ভাঙিয়ে মালিক শ্রমিক ঐক্য পরিষদের নামে পরিবহন সেক্টর থেকে অবৈধভাবে চাঁদাবাজি করে আসছিল। এই চক্রের নেতৃত্বে ছিলেন জেলা শ্রমিকলীগের সভাপতি বাবুল সরকার।

সম্প্রতি মালিক-শ্রমিকরা চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে সোচ্চার হলে এবং বৈধ সংগঠনগুলো পরিবহন সেক্টরের নেতৃত্ব নিলে বাবুল সরকার জেলা থেকে গা ঢাকা দেন। বর্তমানে ঢাকাতে বসে নানা ষড়যন্ত্র করছেন।

এরই অংশ হিসেবে ঢাকা (গাবতলী) জেলা মালিক-শ্রমিক ঐক পরিষদের ব্যানারে বুধবার থেকে ৪৮ ঘণ্টার ধর্মঘটের ডাক দেয়া হয়েছে। সংবাদ সম্মেলনে এ ধর্মঘটের প্রতিবাদ জানিয়ে বুধবার পরিবহন মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের নেতারা মাঠে থেকে তা প্রতিহতের ঘোষণা দেন।

জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আফম সুলতানুল আজম আপেল সাংবাদিকদের বলেন, বুধবার তারা ঢাকা-আরিচা মহাসড়কসহ জেলার অভ্যন্তরে সব প্রকার যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক রাখবেন। মানিকগঞ্জ থেকে ছেড়ে যাওয়া কোনো যানবাহনকে যদি গাবতলীতে বাধা বা ভাঙচুর করা হয় তাহলে মানিকগঞ্জের ওপর দিয়েও দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের কোনো যানবাহন চলাচল করতে দেয়া হবে না।

বি.এম খোরশেদ/এএম/আরআইপি