মুক্তিযোদ্ধা কোটায় পুলিশে চাকরি নিয়ে বাবুর্চিসহ ৩ জন ধরা

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক নাটোর
প্রকাশিত: ০৬:৩২ পিএম, ১৭ এপ্রিল ২০১৮

নাটোরে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধার সনদ ব্যবহার করে পুলিশ কনস্টেবল পদে চাকরি নিয়ে বাবুর্চিসহ তিনজন পুলিশের হাতে ধরা পড়েছেন।

সোমবার রাতে তাদের গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃৃৃৃতরা হলেন- নাটোর সদর উপজেলার লালমনিপুর গ্রামের ফরজ আলীর ছেলে রবিন হোসেন, বড়াইগ্রাম উপজেলার পারখোলা গ্রামের সাইফুল ইসলাম জোয়ারদারের ছেলে ইমরান হোসেন এবং নাটোর পুলিশ লাইনের বাবুর্চি ও নাটোর সদর উপজেলার বড়হরিশপুর এলাকার আব্দুল খালেকের ছেলে সোহাগ হোসেন।

পুলিশ জানায়, গত ২৪ ফেব্রুয়ারি নাটোরে পুলিশ কনেস্টবল পদে লোক নিয়োগ দেয়া হয়। নিয়োগের সময় রবিন হোসেন এবং ইমরান হোসেন নাটোর পুলিশ লাইনের বাবুর্চি সোহাগ মুক্তিযোদ্ধার সনদ ব্যবহার করে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় চাকরি পায়। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে পুলিশ তদন্ত করে ঘটনার সত্যতা পায় এবং তাদের গ্রেফতার করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে নাটোর থানা পুলিশের এসআই আকিবুল ইসলাম বলেন, এ ব্যাপারে ছয়জনকে অভিযুক্ত করে নাটোর থানায় একটি মামলা করা হয়েছে। বাকি অভিযুক্তদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

নাটোরের পুলিশ সুপার বিপ্লব বিজয় তালুকদার বলেন, গত দুইদিন আগে বিষয়টি আমরা জানতে পারি। এরপর তদন্ত করতে গিয়ে ভুয়া সনদ তৈরির সিন্ডিকেটের সঙ্গে জড়িতদের শনাক্ত করি। এদেরকে আইনের আওতায় আনার চেষ্টা চলছে।

রেজাউল করিম রেজা/এএম/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :