সুন্দরবনে গোলাগুলি, অপহৃত ৮ জেলে ও অস্ত্র উদ্ধার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ০৭:৪৭ পিএম, ১৩ জুলাই ২০১৮
ফাইল ছবি

পশ্চিম সুন্দরবন সাতক্ষীরা রেঞ্জ এলাকায় কোস্টগার্ড ও বনদস্যুদের মধ্যে গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। বৃহস্পতিবার রাত দেড়টার দিকে সুন্দরবনের ছোট বৈকারী খাল-সংলগ্ন বৌ-ঠাকুরানির চর এলাকায় এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে।

কৈখালী কোস্টগার্ড ও বনদস্যু জাকির বাহিনীর মধ্যে ৮০-৯০ রাউন্ড গুলি বিনিময় হয়। পরে কৈখালী কোস্টগার্ড, দোবেকী কোস্টগার্ড ও আংটিহারা কোস্টগার্ড সদস্যরা ঘটনাস্থলে শুক্রবার দিনভর তল্লাশি চালিয়ে বনদস্যুদের ব্যবহৃত দুটি ট্রলার, একটি নৌকা ও দুটি পাইপগানসহ মুক্তিপণের দাবিতে জিম্মি আট জেলেকে উদ্ধার করে।

উদ্ধার জেলেরা হলেন, খুলনার কয়রা থানার কয়রা গ্রামের জবেদ আলীর ছেলে শরিফুল (৩৫), সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার মীরগাং গ্রামের বারী মোড়লের ছেলে মহাসিন (২৮), আব্দুল মজিদের ছেলে শাহীন (৩৫), সাকাত গাজীর ছেলে রেজাউল (৫৫), কদমতলা গ্রামে নাসিম গাজীর ছেলে আবুল গাজী (৬৫), আটুলিয়া গ্রামের কামাল গাজীর ছেলে নুর ইসলাম (৩৫) এবং চুনকুড়ি গ্রামের হোসেন আলীর ছেলে বক্কার (৪০)।

কৈখালী কোস্টগার্ড পেটি অফিসার মো. আমির হোসেন জানান, সুন্দরবনে বনদস্যু জাকির বাহিনীর অবস্থান নিশ্চিত হয়ে সমন্বিত অভিযান চালানো হয়। এসময় বনদস্যু জাকির বাহিনী কোস্টগার্ডের উপস্থিতি বুঝতে পেরে গুলি ছুড়ে। পরে তারা পালিয়ে যায়। উদ্ধার করা দুটি অস্ত্র শ্যামনগর থানায় জমা দেয়া হয়েছে। জেলেদের সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের মাধ্যমে নিজ নিজ বাড়িতে পাঠানো হয়েছে।

আকরামুল ইসলাম/এমএএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :