ভিজিএফের চাল আত্মসাতের অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে মামলা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নেত্রকোনা
প্রকাশিত: ০২:৫৬ পিএম, ১৮ আগস্ট ২০১৮

নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলার কৈলাটী ইউনিয়নে ঈদ উপলক্ষ্যে দুস্থদের জন্য বরাদ্দ দেয়া ভিজিএফের চাল আত্মসাতের অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান রুবেল ভূঁইয়াসহ অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করা হয়েছে।

উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আসাদুজ্জামান বাদী হয়ে শুক্রবার রাতে কলমাকান্দা থানায় এ মামলাটি দায়ের করেন।

কলমাকান্দা উপজেলা প্রশাসন ও প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র জানায়, উপজেলার কৈলাটী ইউনিয়নে ২ হাজার ৩৫৫ জন ভিজিএফ কার্ডধারী রয়েছেন। ওই কার্ডধারীদের মধ্যে বিতরণের জন্য প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ বরাদ্দ থেকে ৪৭ মেট্রিক টন ১০০ কেজি চাল বরাদ্দ দেয়া হয়। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে কৈলাটী ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফ কার্ডধারীদের মধ্যে ওই চাল বিতরণের সময়-সূচি নির্ধারিত ছিল। কিন্তু এ বিষয়ে এলাকায় প্রচারণা কম চালানো হয়। ফলে ভিজিএফ কার্ডধারীদের উপস্থিতিও ছিল কম। ওই ইউনিয়নের ইউপি চেয়ারম্যান মো. রুবেল ভূঁইয়া সরকারি গুদাম থেকে চাল উত্তোলন করে কিছু চাল বিতরণ করেন। ইউপি চেয়ারম্যান ৫ মেট্রিক টন ৪০ কেজি চাল বিতরণ না করেই সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে না জানিয়ে বেআইনিভাবে ওই চাল পরিষদে রেখে আত্মসাতের চেষ্টা করেন। পরে খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার রাত ১১টার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আরিফুজ্জামান ওই চাল ইউনিয়ন পরিষদে জব্দ করে তা সিলগালা করেন।

অভিযোগের বিষয়ে কৈলাটী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রুবেল ভূঁইয়া জানান, ওই চাল পরবর্তীতে বিতরণ করার জন্য রাখা হয়েছিল।

কলমাকান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আরিফুজ্জামান জানান, চাল বিতরণে সব কিছুতেই গড়মিল দেখা গেছে। ২ হাজার ৩৫৫ জন ভিজিএফ কার্ডধারীর মধ্যে বিতরণের মাস্টার রোলে পাওয়া গেছে ১ হাজার ১৭২ জনের। এ ছাড়া ৬ মেট্রিক টন চাল জব্দ করা হয়েছে।

মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে কলমাকান্দা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মিজানুর রহমান জানান, ইউপি চেয়ারম্যানসহ অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে দায়েরকৃত মামলায় তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

কামাল হোসাইন/আরএ/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :