ত্রাণ পেল নড়িয়ার ১ হাজার পরিবার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি শরীয়তপুর
প্রকাশিত: ০৬:৩১ পিএম, ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

পদ্মা নদীর ভাঙনে শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার হাজার হাজার মানুষ নিঃস্ব। এমতাবস্থায় নদী ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত ১ হাজার ২০টি পরিবারের মাঝে ত্রাণ বিতরণ করেছে বেগম আশরাফুন নেছা ফাউন্ডেশন।

বুধবার দুপুরে নড়িয়া উপজেলা কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার চত্বরে এ ত্রাণ বিতরণ করা হয়। নড়িয়া উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান হাজী আব্দুল ওহাব বেপারীর সভাপতিত্বে এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বেগম আশরাফুন নেছা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক একেএম এনামুল হক শামীম।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- শরীয়তপুর জেলা প্রশাসক কাজী আবু তাহের, শরীয়তপুর জেলা পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন, নড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সানজিদা ইয়াসমিন, নড়িয়া পৌরসভার মেয়র মো. শহিদুল ইসলাম বাবু রাড়ী, নড়িয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আসলাম উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের আইনবিষয়ক সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, নড়িয়া উপজেলা পরিষদ ভাইস চেয়ারম্যান মো. জাকির হোসেন বেপারী ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান নাজমা আক্তার প্রমুখ।

sariat1

নদী ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্ত কেদারপুর ইউনিয়ন, চরাত্রা ইউনিয়ন ও নড়িয়া পৌরসভার ১ হাজার ২০টি পরিবারের মাঝে চাল, ডাল, তেল, লবণ, আলু, পেঁয়াজ, স্যালাইন, শাড়ি ও লুঙ্গি বিতরণ করা হয়।

প্রসঙ্গত, পদ্মা নদীর ভয়ঙ্কর ভাঙনে নাড়িয়া উপজেলায় গত দেড় মাসে প্রায় সাড়ে ৩ হাজার ঘরবাড়ি, ব্যবসা-প্রতিষ্ঠান, শিক্ষা-প্রতিষ্ঠান, হাসপাতাল, মসজিদ ও মন্দির বিলীন হয়ে গেছে। গত সোমবার পদ্মায় বিলীন হয়ে যায় ৫০ শয্যার নড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নতুন ভবন।

মো. ছগির হোসেন/এএম/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :