এত ব্যথা সহ্য হয় না

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পটুয়াখালী
প্রকাশিত: ০৫:২৩ পিএম, ১২ অক্টোবর ২০১৮

অজানা এক রোগে আক্রান্ত পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার স্কুলছাত্র মো. আবুল বাশার। দীর্ঘদিন ধরে তার বুকের নিচের অংশে গোলাকৃতি ফোঁড়ার ন্যায় ফুলে আছে। সেটার যন্ত্রণায় কাতর সে। এ কারণে লেখাপড়া বন্ধ হয়ে গেছে তার। স্থানীয় খাজুরবাড়িয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ালেখা করতো সে।

বাশার জানায়, গোল জায়গাটা প্রচণ্ড ব্যাথা করে। সহ্য করতে পারি না। ব্যথার কারণে লেখাপড়া করতে পারি না। হাটতে, বসতে এমনকি ঘুমাতেও কষ্ট হয়। বাশারের বাবা আব্দুল প্যাদা রিকশাচালক। রিকশা চালিয়ে তিনি যা আয় করেন তা দিয়েই চলে তাদের সংসার। তাই ছেলেকে ভালোভাবে চিকিৎসা করাতে পারেননি তিনি।

তিনি জানান, বাশার যখন ছোট তখনই তার মা মারা যায়। এরপর থেকে তাকে অনেক কষ্টে বড় করেছি। স্থানীয় অনেকেই তার জন্য চেষ্টা করেছে। তাদের কাছে শুনেছি তার চিকিৎসা করাতে অনেক টাকার প্রয়োজন। তাই পিছিয়ে গেছি।

স্থানীয়রা জানান, এলাকার অনেকেই বাশারের জন্য চাঁদা তুলে বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার চিকিৎসা করিয়েছেন। চিকিৎসকরা বলেছে, ব্যথার অংশটি বুকের হাড় ছুঁয়েছে। তাই অস্ত্রোপচারসহ বেশ কিছু টাকা প্রয়োজন। দ্রুত চিকিৎসা না হলে তার মৃত্যু হতে পারে। বাশারের বিষয়ে যোগাযোগ করতে পারেন ০১৭১০৩২১৬২২ নম্বরে মহিব্বুল্লাহ্ চৌধুরীর সঙ্গে।

মহিব্বুল্লাহ্ চৌধুরী/এমএএস/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :