ইবিতে শিক্ষার্থীদের প্রশাসন ভবন অবরোধ

বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক
বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়
প্রকাশিত: ০৫:৪২ পিএম, ২৩ অক্টোবর ২০১৮

ভর্তি ফি কমানোর দাবিতে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) প্রশাসন ভবন অবরোধ করেছে শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টা থেকে দুপুর দেড়টা পর্যন্ত তারা প্রশাসন ভবন অবরোধ করে রাখে।

ক্যাম্পাস সূত্রে জানা গেছে, বেলা সাড়ে ১১টার দিকে শিক্ষার্থীরা ভর্তি ফি কমানোর দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ভবনের সামনে অবস্থান নেয়। এ সময় তারা বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকে। একপর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মাহবুবর রহমান সেখানে আসলে শিক্ষাার্থীরা ভুয়া-ভুয়া বলে স্লোগান দিতে থাকে। তিনি শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলতে চাইলেও তারা কথা বলতে রাজি হয়নি। এ সময় আন্দোলনকারীরা লাগাতার আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা দেয়।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক মাহবুবর রহমান বলেন, আন্দোলনের যেসব প্রক্রিয়া রয়েছে তার কোনো কিছুই এখানে অনুসরণ করা হয়নি। মীমাংসিত একটি বিষয়কে ইস্যু করে হঠাৎ করেই কেন ক্যাম্পাসকে অস্থিতিশীল করা হচ্ছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

ক্যাম্পাস সূত্রে জানা গেছে, ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষ থেকে হঠাৎ করেই ভর্তি ফি তিনগুণ বৃদ্ধি করে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। ফলে শিক্ষা ফিসহ বাৎসরিক অন্যান্য ফি বাবদ প্রায় ১২ হাজার টাকা জমা দিতে হবে তাদের। যা আগের শিক্ষাবর্ষে ছিল ৪ হাজার টাকারও কম। এসব ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে গত ১৫ অক্টোবর থেকে আন্দোলন করে আসছে এই শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থীরা। তাদের আন্দোলনে একাত্মতা ঘোষণা করেছে ইবি ছাত্রলীগের সভাপতি শাহিনুর রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক জুয়েল রানা হালিম। ফি বৃদ্ধির এক বছর পরে আন্দোলন হওয়ার পেছনে ছাত্রলীগের প্রত্যক্ষ মদদ রয়েছে বলে গুঞ্জন রয়েছে।

এ বিষেয়ে ইবি ছাত্রলীগের সভাপতি শাহিনুর রহমান বলেন, গত বছর ভর্তি ফি বৃদ্ধির সময় আমাদের সামান্য পরিমাণে ফি বৃদ্ধির বিষয়টি অবহিত করে প্রশাসন। কিন্তু তিনগুণ ফি বৃদ্ধি করার বিষয়টি জানা ছিল না। আমরা সাধারণ শিক্ষার্থীদের স্বার্থে আন্দোলন করছি। এর পেছনে কোনো উদ্দেশ্য নেই।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক হারুন উর রশিদ আসকারী বলেন,গত বছর সীমিত পরিমাণে ফি বৃদ্ধি করা হয়েছে। যা বিশ্ববিদ্যালয় পরিবারের কল্যাণেই। আর বিষয়টি মীমাংসিত এবং বাস্তবায়িত।

ফেরদাউসুর রহমান সোহাগ/আরএআর/পিআর

আপনার মতামত লিখুন :