বিএনপি নেতা শাহীন হত্যা, মেয়র আমিনুল গ্রেফতার

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বগুড়া
প্রকাশিত: ১০:০৮ পিএম, ২৩ এপ্রিল ২০১৯

বগুড়ায় বিএনপি নেতা পরিবহন ব্যবসায়ী মাহবুব আলম শাহীন হত্যা মামলার প্রধান আসামি পৌরসভার প্যানেল মেয়র ও জেলা মোটর মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলামকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বগুড়া পুলিশের একটি দল রাজধানীর বঙ্গবন্ধু স্টেডিয়ামের তিন নম্বর গেট এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতারের পর আমিনুল ইসলামকে সঙ্গে নিয়ে পুলিশের ওই দলটি বগুড়ার উদ্দেশে রওনা হয়েছে। আমিনুল ইসলাম বগুড়া এরুলিয়া এলাকার প্রবীণ শ্রমিক নেতা আবদুল লতিফ মন্ডলের ছেলে।

বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আলোচিত ওই হত্যা মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আমবার হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশের একটি টিম তাকে ঢাকা থেকে গ্রেফতার করেছে।

এর আগে ওই হত্যা মামলায় এজাহারভুক্ত একজনসহ দুই আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। রাসেল ও পায়েল সেখ নামে ওই দুই আসামি এরই মধ্যে হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি দিয়েছে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো জানায়, জবানবন্দিতে ওই দুই আসামি জানিয়েছে বগুড়া জেলা মোটর মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ইসলামের অফিসেই শাহীন হত্যার পরিকল্পনা করা হয়।

বগুড়া সদর উপজেলা বিএনপি সাধারণ সম্পাদক শাহীন গত ১৪ এপ্রিল রাতে উপশহর বাজারে খুন হন। ওই হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে বগুড়া মোটর মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক ও পৌর প্যানেল মেয়র আমিনুল ইসলামসহ ১১ জনের বিরুদ্ধে ১৬ এপ্রিল মামলা করেন নিহত শাহীনের স্ত্রী আকতার জাহান শিল্পী। এজাহারে তিনি অভিযোগ করেন মোটর মালিক গ্রুপের নেতৃত্ব নিয়ে দ্বন্দ্বের কারণে আমিনুল তার সহযোগীদের নিয়ে শাহীনকে পরিকল্পিতভাবে খুন করে।

মামলার পরদিন আমিনুলের সহযোগী রাসেল ও পায়েল নামে দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়। এদের মধ্যে পায়েল প্রথম এজাহারভুক্ত আসামি। পরে রাসেল স্বীকারোক্তি দিলে তার নামও এজাহারে অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

গত ১৮ এপ্রিল দুপুরে সংবাদ সম্মেলনে পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা বলেছেন, গ্রেফতার দুই আসামি জানিয়েছে মোটর মালিক গ্রুপের নেতা প্যানেল মেয়র আমিনুল ইসলামই শাহীন হত্যার পরিকল্পনা করেন।

লিমন বাসার/এএম/এমএস

আপনার মতামত লিখুন :