পানি আনতে গিয়ে ধর্ষণের শিকার শিশু

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি হবিগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৯:৪৬ এএম, ৩০ এপ্রিল ২০১৯

হবিগঞ্জের আজমিরীগঞ্জে প্রথম শ্রেণির ছাত্রীকে (৯) ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। গুরুতর আহত অবস্থায় শিশুটিকে সদর আধুনিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত অর্জুন দাশ (১৮) পলাতক রয়েছে।

অর্জুন দাশ আজমিরীগঞ্জ উপজেলার বিরাট উদবপুর গ্রামের অনিল দাশের ছেলে।

এলাকাবাসী জানান, সোমবার দুপুরে একই গ্রামের বাসিন্দা উদবপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রথম শ্রেণির ওই ছাত্রী অর্জুনের বাড়ির টিউবওয়েলে পানি আনতে যায়। এ সময় অর্জুন তাকে ধর্ষণ করে। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠানো হয়।

তারা আরও জানান, শিশুটি অতিদরিদ্র পরিবারের। তার বাবাও নেই। তার চিকিৎসা ব্যয় বহন করার ক্ষমতা নেই। অর্জুন এলাকায় প্রভাবশালী ও বিত্তশালী হওয়ায় বিষয়টি ধামাচাপা দেয়ার পাঁয়তারা করছে।

আজমিরীগঞ্জ থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাজমুল হাসান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, ডাক্তারি পরীক্ষায় শিশুটিকে ধর্ষণের প্রাথমিক আলামত পাওয়া গেছে। আরও উন্নত পরীক্ষা ও চিকিৎসার জন্য রাতে শিশুটিকে সদর আধুনিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত অর্জুনকে গ্রেফতারে পুলিশ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালাচ্ছে।

সৈয়দ এখলাছুর রহমান খোকন/আরএআর/জেআইএম

আপনার মতামত লিখুন :