প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে ছেলেকে হত্যার পর রগ কেটে দিলেন বাবা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ব্রাহ্মণবাড়িয়া
প্রকাশিত: ০৯:৩৬ এএম, ২৯ জুলাই ২০১৯

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলায় মোরসালিন (১০) নামে এক শিশুকে শ্বাসরোধে হত্যার পর গলার রগ কেটে দিয়েছে তারই বাবা।

রোববার রাতে উপজেলার ধরমণ্ডল ইউনিয়নের ধরমণ্ডল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। হত্যার পর পালানোর সময় ঘাতক বাবা মো. মোসাঈদকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে স্থানীয়রা।

প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর জন্যই মোসাঈদ তার নিজের ছেলেকে হত্যা করেছেন বলে জানিয়েছেন নাসিরনগর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাজিদুর রহমান।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মোসাঈদ দুই বিয়ে করেছেন। মোরসালিন তার প্রথম স্ত্রীর সন্তান। তবে দ্বিতীয় বিয়ের পর থেকে মোসাঈদ প্রথম স্ত্রী ও সন্তানদের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন। গত দু’দিন আগে হঠাৎ করে মোসাঈদ প্রথম স্ত্রীর বাড়িতে যান। রোববার বিকেলে মোরসালিনকে তার কাছে থাকা ৪০ টাকা দিয়ে দোকান থেকে ব্লেড ও সিগারেট কিনে আনতে বলেন মোসাঈদ।

মোরসালিন বের হওয়ার কিছুক্ষণ পর মোসাঈদও বাড়ি থেকে বের হন। কিন্তু তারা দুজনই আর বাড়ি ফিরে আসেনি। রাতে বাড়ির পাশে মোরসালিনের গলায় রশি বেঁধে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর ব্লেড দিয়ে গলার রগ কেটে দেন মোসাঈদ। হত্যার পর পালানোর সময় স্থানীয়রা মোসাঈদকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

ওসি সাজিদুর রহমান জাগো নিউজকে জানান, মোরসালিন গত পরশু ফুটবল খেলে ৪০ টাকা জিতেছিল। সে ওই টাকা দিয়ে স্কুলের ফি দিতে বলায় তাকে ধমক দেয় মোসাঈদ। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মোসাঈদ হত্যার দায় স্বীকার করে জানিয়েছে প্রতিপক্ষকে ফাঁসানোর জন্য সে নিজের ছেলেকে হত্যা করেছে। মোসাঈদ মাদকাসক্ত বলেও জানিয়েছেন ওসি।

আজিজুল সঞ্চয়/এফএ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]