মাগুরায় ঋণের টাকা দিতে না পেরে গৃহবধূর আত্মহত্যা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাগুরা
প্রকাশিত: ১১:৩০ পিএম, ২৪ আগস্ট ২০১৯

মাগুরার শ্রীপুর উপজেলায় ঋণের টাকা পরিশোধ করতে না পেরে রিনা বিশ্বাস নামে এক গৃহবধূ বিষ খেয়ে আত্মহত্যা করেছেন। শনিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। রিনা বিশ্বাস উপজেলার হরিন্দি গ্রামের মৎস্য ব্যবসায়ী সরোজিৎ বিশ্বাসের স্ত্রী।

পরিবারের সদস্যরা জানায়, রিনা বিশ্বাস স্বামীর ব্যবসায়িক কাজের জন্য আশা এনজিও থেকে ৩০ হাজার, সরকারের পলি­ দারিদ্র বিমোচন ফাউণ্ডেশন-পিডিবিএফ থেকে ৪০ হাজার এবং অপি নামে স্থানীয় এক সুদ কারবারির কাছ থেকে ৩০ হাজার টাকা ঋণ নেন। কিন্তু দুটি প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে নেয়া ঋণের কিস্তির পাশাপাশি সুদে কারবারির সাপ্তাহিক সুদের টাকা পরিশোধ করা তাদের পক্ষে কষ্টকর হয়ে দাঁড়ায়। অথচ এসব ঋণের জন্যে প্রায় কেউ না কেউ বাড়িতে ধরনা দেয়, যা নিয়ে রিনা বিশ্বাস মানসিকভাবে বিপর্যস্ত ছিলেন।

রিনা বিশ্বাসের পুত্রবধূ কল্পনা রাণি জানান, সর্বশেষ গত বুধবার রাত ৯টার দিকে স্থানীয় ছাত্রলীগ নেতা অপি তার কাছ থেকে নেয়া টাকার বিপরীতে পাওনা সুদের টাকার জন্যে বাড়িতে এলে তিনি দুশ্চিন্তায় ভেঙে পড়েন। পরে রাত সাড়ে ১০টার দিকে ঘরে থাকা কীটনাশক খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন তিনি। বিষয়টি জানতে পেরে তাকে মাগুরা ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। কিন্তু অবস্থা খারাপ হওয়ায় তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে শনিবার দুপুরে তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে শ্রীপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহবুবুর রহমান বলেন, ঋণের কারণে রিনা বিশ্বাসের মৃত্যুর খবর পুলিশের কাছে নেই। তবে সুদ কারবারিদের তৎপরতা বন্ধে বিভিন্ন সময়ে পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। এটি নির্মূলে সবাইকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান তিনি।

মো. আরাফাত হোসেন/এমএসএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]