সাতক্ষীরা উপকূলে উদ্ধারকাজে সেনাবাহিনী

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সাতক্ষীরা
প্রকাশিত: ০৮:৫৭ পিএম, ১০ নভেম্বর ২০১৯

ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে তছতছ হয়েছে সাতক্ষীরা উপকূল। গাছ উপড়ে বিচ্ছিন্ন হয়েছে যোগাযোগ ব্যবস্থা। সাতক্ষীরা-মুন্সিগঞ্জ সড়কসহ বিভিন্ন সড়কে ভেঙে পড়া গাছ সরিয়ে যোগাযোগ ব্যবস্থা স্বাভাবিক করতে কাজ করছে সেনাবাহিনী। একই সঙ্গে কাজ করছে বিজিবি, র‌্যাব, পুলিশ ও নৌবাহিনী।

রোববার (১০ নভেম্বর) সন্ধ্যায় সাতক্ষীরা জেলা প্রশাসক (ডিসি) এসএম মোস্তফা কামাল বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত উপকূলীয় এলাকায় বিধ্বস্ত হয়েছে মানুষের বাড়িঘর। এসব মানুষকে সহায়তার জন্য নগদ ১৭ লাখ টাকা ও ৫০০ মেট্রিক টন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত এসব মানুষের পুনর্বাসনসহ জীবনযাত্রা স্বাভাবিক করতে কাজ করছে প্রশাসন।

army-(5)

তিনি বলেন, উপকূলীয় এলাকায় ঝুঁকিপূর্ণ বাঁধ মেরামতের জন্য জরুরি ভিত্তিতে পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে। আর যেন উপকূলীয় মানুষের আশ্রয়কেন্দ্রে যেতে না হয় সে লক্ষ্যে কাজ করছে সরকার। দ্রুত সময়ের মধ্যেই স্থায়ীভাবে বাঁধ মেরামতের কাজ করা হবে। এছাড়া বিভিন্ন এলাকায় দুর্গত মানুষের মাঝে ত্রাণ বিতরণ শুরু করা হয়েছে। সরকারিভাবে আশ্রয়কেন্দ্রে আশ্রিতদের খাবার সরবরাহ করা হয়েছে।

সাতক্ষীরা জেলা কন্ট্রোল রুমের তত্ত্বাবধায়ক প্রশান্ত কুমার রায় বলেন, জেলাব্যাপী ৫০ হাজার ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। এর মধ্যে আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে ৩৩ হাজার ৬৬০টি ঘরবাড়ি। পুরোপুরি বিধ্বস্ত হয়েছে ১৬ হাজার ৫৮০টি ঘরবাড়ি। এছাড়া উপকূলীয় এলাকার ৫ হাজার ৭১৯ হেক্টর চিংড়ি ঘের ও ২৭ হাজার হেক্টর জমির ফসল নষ্ট হয়েছে।

আকরামুল ইসলাম/এএম/এমকেএইচ