তিন বখাটের হাত থেকে বাঁচতে শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সুনামগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৯:৪৫ পিএম, ২১ জানুয়ারি ২০২০

বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়ার সময় বখাটেদের অত্যাচারে অতিষ্ট হয়ে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে শিক্ষার্থীরা। মঙ্গলবার সকালে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার লক্ষণশ্রী ইউনিয়নের নীলপুর বাজারে সকাল ১০টা থেকে বেলা সাড়ে ১১টা পর্যন্ত সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে শিক্ষার্থীদের অভিভাবক ও আশপাশের গ্রামের মানুষ।

জানা যায়, সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার আলহাজ্ব জমিরুন নূর উচ্চ বিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষার্থীকে লক্ষণশ্রী ইউনিয়নের অনহার, ইয়াহিয়া ও ছাব্বির নামে তিন বখাটে প্রতিনিয়ত শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়ার সময় উত্যক্ত করতো। শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন সময় প্রতিষ্ঠানকে বিষয়টি জানালেও বখাটেরা শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন রকম হুমকি প্রদান করে, পরে ছাত্রীরা স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটিকে বিষয়টি জানালেও বিষয়টি দেখছেন বলেও কোনো ব্যবস্থা না নেয়ায় শিক্ষার্থীরা ক্ষোভে মঙ্গলবার সকালে সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী বলেন, আমরা বিদ্যালয়ে আসতে পারি না। আমাদের ইয়াহিয়া, ছাব্বির ও অনহার সব সময় সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের পাশে দাঁড়িয়ে থাকে। বিভিন্ন রকমের খারাপ মন্তব্য করে রাস্তায় চলাফেরা করতে গেলে। আমরা স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটিকে বিভিন্ন সময় বলেছি কিন্তু তারা কোনো ব্যবস্থা নেননি। আমরা চাই এ বখাটেদের অবিলম্বে গ্রেফতার করা হোক।

নীলপুর বাজারে বাসিন্দা আলী আজগর বলেন, জমিরুন নূর উচ্চ বিদ্যালয়টি সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের পাশে হওয়ায় বিভিন্ন গ্রাম থেকে ছেলে-মেয়েরা বিদ্যালয়ে পড়তে আসে। কিন্তু বর্তমানে কয়েকদিন হলো মেয়েরা বিদ্যালয়ে আসতে ভয় পাচ্ছে। যার কারণে আজকে অভিভাবক ও গ্রামবাসী মিলে শিক্ষার্থীদের নিয়ে এ বিক্ষোভ। আমরা এসব বখাটের শাস্তি চাই।

iftijing12

এ ঘটনায় সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়ক প্রায় ঘণ্টাব্যাপী অবরুদ্ধ হয়ে থাকে। এসময় শতাধিক যাত্রী সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের পাশে আটকা পড়েন।

এ ব্যাপারে লক্ষণশ্রী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান আব্দুল ওয়াদুদ বলেন, এ বিদ্যালয়ের প্রতিটি শিক্ষার্থীকে আমি আমার নিজের ছেলে-মেয়ের থেকেও বেশি আদর করি। বিদ্যালয় ছুটির পর আমি মোটরসাইকেল দিয়ে গিয়ে দেখি আমার মেয়েদের কেউ বিরক্ত করছে কি না, কিন্তু আজকের বিষয়টি আমার সম্পূর্ণ অজানা। ইতোমধ্যে পুলিশ ও প্রশাসনের সঙ্গে আমার কথা হয়েছে, তারা আমাকে সহযোগিতা করবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

সুনামগঞ্জ সদর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (অপারেশন) মো. মঞ্জুর মোর্শেদ বলেন, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটিকে ছাত্র-ছাত্রীরা বিষয়টি জানিয়েছিল, কিন্তু তারা কোনো পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় শিক্ষার্থীরা অবরোধে অংশ নেয়। এ বখাটেদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে এবং ইতোমধ্যে অভিযান শুরু হয়ে গেছে।

তিনি আরও বলেন, শিক্ষার্থীদের আমরা আশ্বাস দিয়েছি দ্রুত সময়ের মধ্যে বখাটেদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব। এজন্য শিক্ষার্থীরা অবরোধ তুলে নিয়েছেন এবং সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কে যানবাহন চলাচল সচল হয়েছে।

মোসাইদ রাহাত/এমএএস/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]