করোনায় শ্রমিকদের সন্তানকে পড়াবে ছাত্র ফ্রন্ট

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি মাগুরা
প্রকাশিত: ০৭:৪৬ পিএম, ০৩ জুন ২০২০

মাগুরায় বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দল (বাসদ) ও সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট'র উদ্যোগে করোনা দুর্যোগেও পড়াশুনা অব্যাহত রাখতে বিনা বেতনের স্কুল অদম্য পাঠশালা করোনায় থামবে না পড়া এর কার্যক্রম চালু রেখেছে। তাদের দাবি এতে উপকৃত হচ্ছে কোমলমতি শিশুরা।

করোনা দুর্যোগে গত ১৭ মার্চ থেকে সারাদেশে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ। কবে খুলবে এ বিষয়ে এখনই কিছু বলা মুশকিল।

মাগুরার শ্রমজীবী পরিবারের সন্তানদের লেখাপড়ার জন্য স্কুলই একমাত্র ভরসা।তাদের সন্তানদের শিক্ষক রেখে প্রাইভেট পড়ানোর আর্থিক সামর্থ্য নেই। অধিকাংশ পরিবারে মোবাইল ফোন নেই। তাই অনলাইন ক্লাস করার সুযোগও তাদের নেই। ফলে নিয়মিত পড়াশুনা অব্যাহত রাখা সম্ভব হবে না এবং অনেকেই ঝরে যাবে শিক্ষা থেকে।

করোনা দুর্যোগে শিক্ষা গ্রহণ যেন বন্ধ না হয়ে যায় সেই লক্ষে বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ ও বাসদ এর ছাত্র সংগঠন সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট এর উদ্যোগে স্বেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে স্কুল অদম্য পাঠশালা করোনায় থামবে না পড়া এর কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

বাসদ এর কেন্দ্রীয় পাঠচক্র ফোরামের সদস্য ও অদম্য পাঠশালায় স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে সমন্বয় ও পাঠদান করবেন প্রকৌশলী শম্পা বসু।

তিনি জাগো নিউজকে বলেন, মাগুরা শহরের দরিদ্র এলাকাগুলোতে গিয়ে পড়ানোর উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে এ পাঠশালা থেকে। শনিবার থেকে বৃহস্পতিবার সকাল ১০ থেকে দুপুর ১টা পর্যন্ত পঞ্চম শ্রেণি থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত পড়ানো হবে।মূলত যে বিষয়গুলোতে (ইংরেজি, গণিত, বিজ্ঞান ও আইসিটি ) শিক্ষার্থীরা বেশি অকৃতকার্য হয়ে থাকে সেই বিষয়গুলো পড়ানো হবে।

তিনি বলেন, শুরুতে মাগুরা শহরের দোয়ারপাড় সর্দার পাড়া, জর্জকোট পাড়া, নিজনান্দুয়ালির চরপাড়া এবং মোল্লা পাড়া এ চারটি দরিদ্র এলাকায় অদম্য পাঠশালার কার্যক্রম শুরু হবে।পরবর্তীতে আরও এলাকায় এ কার্যক্রম সম্প্রসারিত করার পরিকল্পনা রয়েছে বলেও জানান তিনি।

আরাফাত হোসেন/এমএএস/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]