করোনা পরীক্ষায় জালিয়াতি, পাবনায় ক্লিনিক সিলগালা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পাবনা
প্রকাশিত: ০৭:২৩ পিএম, ১৬ জুলাই ২০২০

করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য নমুনা নিয়ে ভুয়া রিপোর্ট দেয়ার অভিযোগে পাবনার ঈশ্বরদী উপজেলার পাকশীর রূপপুর মেডিকেয়ার ক্লিনিকটি বন্ধের নির্দেশের পরও অবৈধভাবে কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ায় এবার সিলগালা করে দেয়া হয়েছে। বিভিন্ন গণমাধ্যমে ক্লিনিকটির কার্যক্রম চালিয়ে যাওয়ার সংবাদ প্রকাশের পর মঙ্গলবার (৭ জুলাই) সেটি সিলগালা করে পাবনা সিভিল সার্জন অফিস।

ঈশ্বরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আসমা খান ও উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. শফিকুল ইসলাম শামিম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তারা জানান, বৃহস্পতিবার সকালে ক্লিনিকটি সিলগালা করা হয়েছে। ওই ক্লিনিক থেকে করোনাভাইরাসের নমুনা সংগ্রহ করে তা পরীক্ষা না করেই ইচ্ছেমতো নেগেটিভ ও পজিটিভ ফল বসিয়ে দেয়া হতো।

জানা গেছে, নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে রূপপুর মেডিকেয়ার ক্লিনিকের মালিক আব্দুল ওহাব রানা ও নাটোরের বড়াইগ্রামের সুজন আহমেদ গত কয়েক দিন যাবত রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের পাশে একটি পরিত্যক্ত ইটভাটার মাঠে তাঁবু বসিয়ে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করতো। প্রতিটি রিপোর্টের জন্য ৫-৬ হাজার টাকা নিয়ে তা পাঠানো হতো ব্রাহ্মণবাড়িয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। গত মঙ্গলবার (৭ জুলাই) রাতে জালিয়াতির অভিযোগে রূপপুর মেডিকেয়ার ক্লিনিকের মালিক আব্দুল ওহাব রানাকে আটক করা হয়

ঈশ্বরদী থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ নাসির উদ্দিন জানান, করোনাভাইরাসের নমুনা সংগ্রহে প্রতারণার অভিযোগে রূপপুর মেডিকেয়ারের মালিক আব্দুল ওহাব রানাসহ সংশ্লিষ্ট তিনজনসহ অজ্ঞাতদের আসামি করে ৯ জুলাই মামলা করা হয়। ওই মামলায় ক্লিনিক মালিক রানাকে গ্রেফতার করা হলেও বাকিদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

আরএআর/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]