টাঙ্গুয়ার হাওরে আমরা ইঞ্জিন চালিত নৌকা বন্ধ করে দেব

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সুনামগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৬:১৩ পিএম, ১১ আগস্ট ২০২০

পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব কবির বিন আনোয়ার বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সমতলে বসবাসরত ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নের জন্য একটি কর্মসূচি রয়েছে। সেখানে তাহিরপুর উপজেলার পর্যটন এলাকাগুলোর উন্নয়নের জন্য কিছু পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। সেগুলোর মধ্যে নারী-পুরুষ আলাদা টয়লেট ও খাবারের জন্য রেস্টুরেন্ট থাকবে।

তিনি বলেন, হাওরে যখন মানুষ প্রবেশ করবে তখন প্লাস্টিকের বোতল ও চিপসের প্যাকেট নিয়ে যেন প্রবেশ করতে না পারে সেজন্যই এগুলো তৈরি করা হবে। এছাড়া টাঙ্গুয়ার হাওরে আমরা ইঞ্জিন চালিত নৌকা বন্ধ করে দেব। সেখানে দাঁড় টানা নৌকা ব্যবহার করবে এবং এগুলো নিয়ে পর্যটকরা ঘুরবে। এরকম বিশেষ নৌকা তৈরির জন্যও একটি প্রকল্প প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে নেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী ও মুজিববর্ষ উপলক্ষে পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ১০ লাখ গাছের চারা রোপণের কার্যক্রম হিসেবে সুনামগঞ্জ শহরের ঐতিহ্য জাদুঘর প্রাঙ্গণে দুটি গাছের চারা রোপণ ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

jagonews24

তিনি বলেন, সেখানে আয়তনের দিক থেকে বিশাল হাওর এলাকা সুনামগঞ্জ জেলাকেও গুরুত্ব দেয়া হয়েছে এবং হাওর এলাকাগুলোর সমস্যা পুরোপুরি সমাধানের জন্য একটি প্রকল্প পাস হয়েছে। এছাড়া হাওর এলাকার উন্নয়নের জন্য সরকার কাজ করছে এবং ভবিষ্যতে আরও প্রকল্প নেয়া হবে।

সুনামগঞ্জের পর্যটন এলাকাগুলোর উন্নয়নের ব্যাপারে কবির বিন আনোয়ার বলেন, সুনামগঞ্জের জন্য গত দুই সপ্তাহ আগে একটি প্রকল্প পাস হয়েছে। সেখানে শহর রক্ষা বাঁধসহ বিভিন্ন প্রকল্প নিয়ে কথা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে ডেল্টা প্ল্যান ঘোষণা করেছেন সেখানে হাওর এলাকাকে আলাদা একটি হটস্পট হিসেবে বিবেচনা করা হয়েছে।

এসময় উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জের জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. শরিফুল ইসলাম, জেলা পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সবিবুর রহমান, সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ইয়াসমিন নাহার রুমা প্রমুখ।

মোসাইদ রাহাত/এমএএস/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]