মেঘনা–ধনাগোধা সেচ প্রকল্পের বেড়িবাঁধে ভাঙন

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি চাঁদপুর
প্রকাশিত: ০৮:৩৮ এএম, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলার মেঘনা–ধনাগোধা সেচ প্রকল্পের মূল বেড়িবাঁধের জনতা বাজার দক্ষিণ রামপুর ও কাচারীকান্দি এলাকায় মেঘনায় আকস্মিক ভাঙন শুরু হয়েছে। শুক্রবার রাত সাড়ে ৯টায় ভাঙন শুরু হয়। ঘটনার পর থেকে হাজার হাজার জনগণ বালু ভর্তি বস্তা ফেলে ভাঙন ঠেকানোর কাজ শুরু করেন। খবর পেয়ে ভাঙন রোধে কাজ করছেন ফায়ার সার্ভিস ও পুলিশ সদস্যরাও। তবে এখন পর্যন্ত বাঁধের ভেতর পানি প্রবেশ করেনি।

বাঁধ রক্ষায় স্থানীয়রা বাঁশ, গাছ, ডালপালা দিয়ে ভাঙন প্রতিরোধ করার চেষ্টা করছেন। বর্তমানে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে বাঁধ। তবে নদীতে পানি বিপৎসীমার নিচে থাকায় বিপদের ঝুঁকি নেই।

শনিবার (১৯ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকেই বাঁধ রক্ষায় কাজ করছেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের নিয়োজিত শ্রমিকরা। খবর পেয়ে স্থানীয় প্রশাসনের লোকজন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। দুপুরে স্থানীয় সংসদ সদস্যের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করার কথা রয়েছে।

chadpur

স্থানীয়রা জানান, শুক্রবার রাতের কোনো এক সময় বেড়ি বাঁধের একাংশে ভাঙন দেখে দেয়। স্থানীয় লোকজন বিষয়টি টের পেয়ে জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনকে জানায়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন উপজেলা প্রশাসনসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

মেঘনা–ধনাগোধা সেচ প্রকল্পের পানি ব্যবহারকারী ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক সরকার আলাউদ্দিন জানান, এ এলাকাই বালুভর্তি বস্তা রেডি ছিল। তা দিয়ে মেরামত করার চেষ্ট চলছে।

মেঘনা-ধনাগোধা সেচ প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলী মামুন হাওলাদার জানান, মতলব উত্তর জনতা বাজার এলাকায় ১৫০ মিটারে মেঘনার ভাঙন দেখা দিয়েছে। এতে ঝুঁকিতে রয়েছে মেঘনা-ধনাগোধা সেচ প্রকল্পের বাঁধ। বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে তাৎক্ষণিক অবহিত করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

এফএ/এমএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]