নেত্রকোণায় ট্রেনে কাটা পড়ে ৩ জনের মৃত্যু

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নেত্রকোণা
প্রকাশিত: ০৮:৪২ এএম, ১৮ অক্টোবর ২০২০

মোহনগঞ্জ- ময়মনসিংহ রেলপথের নেত্রকোনার বারহাট্টা উপজেলা সদরের সাহতা ইউনিয়নের স্বল্প দশাল নামক স্থানে ট্রেনে কাটা পড়ে তিনজন নিহত হয়েছেন। রোববার ভোরে হাওর এক্সপ্রেস ট্রেনের নিচে কাটা পড়েন তারা।

নিহতরা হলেন- উপজেলার স্বল্প দশাল গ্রামের মৃত আবদুল হেকিমের ছেলে স্বপন মিয়া (২২) ও রিপন মিয়া (২৪) এবং একই গ্রামের মৃত কুরপান আলীর ছেলে মোকলেছ মিয়া (২৮)।

এলাকাবাসী ও স্থানীয় পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, জেলার বারহাট্টার স্বল্প দশাল গ্রামের স্বপন মিয়া, রিপন মিয়া ও মোকলেছ মিয়া রেললাইনের পাশের পুকুরে মাছ ধরার জন্য শ্যালোমেশিনে সেচ দিচ্ছিলেন। রোববার ভোরে ক্লান্তি দেখা দিলে তারা তিনজন রেললাইনের ওপর ঘুমিয়ে পড়েন।

ভোর সাড়ে পাঁচটার দিকে মোহনগঞ্জগামী হাওর এক্সপ্রেসের নিচে কাটা পড়ে তিনজন ঘটনাস্থলেই মারা যান। সকালে এলাকাবাসী বিষয়টি দেখে স্থানীয় বারহাট্টা থানা পুলিশকে জানায়। খবর পেয়ে মোহনগঞ্জ রেলওয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ময়মনসিংহ হাসপাতালে পাঠায়।

বারহাট্টা উপজেলার স্বল্প দশাল গ্রামের রংমিয়া জানান, ওই তিনজন গত তিন চার দিন ধরে বিভিন্ন স্থানের ছোট ছোট জলাশয় সেচে মাছ ধরে তা বিক্রি করে আসছিল। কয়েক রাত না ঘুমানোর কারণে হয়ত তারা রেললাইনে শুয়ে ঘুমিয়ে পড়ছিল। আর ওই সময় ট্রেন চলে আসায় কাটা পড়ে যায়।

মোহনগঞ্জ রেলওয়ে পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ সমর বড়ুয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মরদেহগুলো বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। সুরতহাল তৈরি করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ বিষয়ে কারো কোনো অভিযোগ না থাকায় জেলা ম্যাজিস্ট্রেটের নির্দেশে পরিবারের স্বজনদের হাতে মরদেহগুলো বুঝিয়ে দেয়া হয়েছে।

কামাল হোসেন/এফএ/পিআর

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]