মেয়েকে উত্ত্যক্তের প্রতিবাদ করায় মায়ের আঙুল কেটে দিল বখাটেরা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সুনামগঞ্জ
প্রকাশিত: ০২:৫২ পিএম, ০১ ডিসেম্বর ২০২০

মায়ের স্বপ্ন তার মেয়ে ডাক্তার হয়ে বিনা পয়সায় গ্রামের সাধারণ মানুষের চিকিৎসা দেবে। কিন্তু পথের কাঁটা হয়ে আসে বখাটেরা। প্রতিবাদ করেন মা। তাই ক্ষিপ্ত হয়ে নির্যাতন করে ওই মায়ের হাতের আঙুল কেটে দিয়েছে বখাটেরা। নির্মম এ ঘটনা ঘটে সুনামগঞ্জের ছাতক উপজেলায়।

এ ঘটনার পর গত রোববার (২৯ নভেম্বর) থানায় অভিযোগ করেন ওই নারীর দেবর।

গুরুতর আহত অবস্থায় ওই নারীকে প্রথমে ছাতক কৈতক হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। বর্তমানে তার অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে চিকিৎসকরা জানান।

মঙ্গলবার (০১ ডিসেম্বর) খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ছাতক উপজেলার ছৈলা-আফজলাবাদ ইউনিয়নের শ্যামনগর গ্রামের সৌদি প্রবাসী হাছান আহমদের স্ত্রী রুনা বেগম গোবিন্দগঞ্জে যাওয়ার জন্য তার স্কুলপড়ুয়া মেয়েকে সঙ্গে নিয়ে শনিবার (২৮ নভেম্বর) বিকেলে বাড়ি থেকে বের হন। রাস্তার অন্য পাশে দাঁড়িয়ে থাকা গ্রামের আবদুল মন্নানের ছেলে আনোয়ার ও মৃত মসই আলীর ছেলে মিন্টু মিয়া স্কুলপড়ুয়া মেয়েটিকে উত্ত্যক্ত করেন।

এর প্রতিবাদ করে উত্ত্যক্তকারীদের সঙ্গে তর্কে জড়িয়ে পড়েন মা। এ সময় বখাটেদের সহযোগীরা ওই নারীর ওপর হামলা চালিয়ে তার ভ্যানিটি ব্যাগ ছিনিয়ে নেয়। এ সময় বখাটেরা ওই নারীকে টেনে-হিঁচড়ে শ্লীলতাহানির পর তার ডান হাতের একটি আঙুল কেটে দেন।

এ ঘটনায় রোববার (২৯ নভেম্বর) দুপুরে প্রবাসীর ভাই কবি হোসাইন আহমদ বাদী হয়ে গ্রামের আবদুল মন্নানের ছেলে আনোয়ার হোসেনকে প্রধান আসামি করে ছয়জনের বিরুদ্ধে ছাতক থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

ছাতক থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নাজিম উদ্দিন জাগো নিউজকে জানান, আমরা আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান চালাচ্ছি, যেকোনো সময় তাদের গ্রেফতার করা হবে।

লিপসন আহমেদ/এফএ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]