পাবনার তালিকাভুক্ত একমাত্র নারী বীর মুক্তিযোদ্ধা ভানুনেছা আর নেই

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি পাবনা
প্রকাশিত: ০৪:৫৯ পিএম, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০২১

মৃত্যুর কাছে হেরে গেলেন জীবনবাজি রেখে মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেয়া ভানু নেছা (৮৫)। শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে পাবনার সাঁথিয়া উপজেলার নন্দনপুর ইউনিয়নের তেথুঁলিয়া গ্রামের নিজ বাড়িতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

ভানুনেছার ছোট ছেলে শহীদুল ইসলাম ও সাঁথিয়া উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল লতিফ তার মৃত্যুর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে বার্ধক্য জনিত রোগে ভুগছিলেন বীর মুক্তিযোদ্ধা ভানু নেছা। একইদিন বিকাল সাড়ে ৫টায় তাকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হবে।

১৯৩৭ সালে বীর মুক্তিযোদ্ধা ভানু নেছা সাঁথিয়া উপজেলা তলট গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। অল্প বয়সে বাবা নগেন হালদার ও মা রাধা রানী মারা যাওয়ায় পাশের তেথুঁলিয়া গ্রামে অবস্থান নেন তিনি। কঠোর পরিশ্রমী হওয়ায় অল্প সময়ের মধ্যে পরিচিতি পান ভানু নেছা। ধর্মান্তরিত হয়ে বিয়ে করেন তিনি। এক সময় শুরু হয় মুক্তিযুদ্ধ। প্রতিবাদী ভানু নেছা রুখে দাঁড়ান। ধুলাউড়ি, ধোপাদহ, জোড়গাছা অঞ্চল অস্ত্রহাতে চষে বেরিয়েছেন তিনি। জীবনবাজি রেখে সহযোদ্ধা মুক্তিযোদ্ধাদের সাহায্যে হাঁসিমুখে এগিয়ে গেছেন। বজ্রকণ্ঠের বিপ্লবী নারী ভানু নেছা কমান্ডার আবদুল লতিফের নেতৃত্বে বীর বেশে তেথুঁলিয়ায় ফেরেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা ভানু নেছা তিন সন্তানের জননী। জীবনের শেষ দিকে অসুস্থ হয়ে অসহায় জীবন যাপন করতে হয় বীর মুক্তিযোদ্ধা ভানু নেছাকে। তার অসহায়ত্ব নিয়ে ২০১৯ সালে জাগো নিউজে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। তার সাহায্যে এগিয়ে আসেন উপজেলা প্রশাসন।

jagonews24

ভানু নেছার সহযোদ্ধা নন্দনপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সাবেক চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদল কুদ্দুস ও মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সাঁথিয়ার সাবেক কমান্ডার আবদুল লতিফ বলেন, ‘বীর মুক্তিযোদ্ধা ভানু নেছাই ছিলেন পাবনায় তালিকাভূক্ত একমাত্র নারী মুক্তিযোদ্ধা।’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এস এম জামাল আহমেদ বলেন, ‘জাগো নিউজের মাধ্যমে বীর মুক্তিযোদ্ধা ভানু নেছার বীরত্মগাঁধা পড়ে সহযোগিতা জন্য তার নাতির কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হয়। মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য সরকারি বাড়ি বরাদ্ধের তালিকায় তার নাম দেয়া হয়েছে। অল্প কিছুদিনের মধ্যে ২৫ লাখ মূল্যমানের সে বাড়ি নির্মাণের টাকা বরাদ্দ হয়ে আসার কথা। কিন্তু তিনি সে বাড়িতে থেকে যেতে পারলেন না।’

এদিকে বীর মুক্তিযোদ্ধা ভানু নেছার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ও পাবনা-১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু, উপজেলা চেয়ারম্যান আবদুল্লাহ আল-মাহমুদ দেলোয়ার, সাঁথিয়া পৌরসভার মেয়র মাহবুব আলম বাচ্চু, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সাঁথিয়ার সাবেক কমান্ডার আবদুল লতিফ, যুব লীগের কেন্দ্রীয় নেতা অ্যাডভোকেট আসিফ শামস রঞ্জন প্রমুখ।

আমিন ইসলাম/আরএইচ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]