নোয়াখালীতে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে গৃহবধূকে গণধর্ষণ

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী
প্রকাশিত: ১২:৫২ পিএম, ০৩ মার্চ ২০২১
ফাইল ছবি

নোয়াখালীর হাতিয়া উপজেলায় এক গৃহবধূকে (২০) বসত ঘরের সামনে থেকে তুলে নিয়ে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় বুধবার (৩ মার্চ) দুপুরে গ্রেফতার ৩ জনকে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

এর আগে, গত ২৭ ফেব্রুয়ারি রাত পৌনে ১২টার দিকে উপজেলার তমরদ্দী ইউনিয়নের ক্ষিরোদিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে এ ঘটনায় ভুক্তভোগীর করা মামলায় তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতাররা হলেন, এজাহারভুক্ত আসামি ফজর আলী ওরফে হেলাল (২৫), মো. মিরাজ (২৮), মো. নেজাম (৫০)।

ভুক্তভোগীর পরিবার সূত্রে জানা যায়, ২৭ ফেব্রুয়ারি রাত ৮টার দিকে প্রতিদিনের মতো খাবার খেয়ে ওই গৃহবধূ (২০) তার স্বামীসহ নিজের ঘরে ঘুমিয়ে পড়েন। রাত অনুমানিক পৌনে ১২টার দিকে প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে গৃহবধূ ঘরের বাইরে গেলে কিছু বুঝে ওঠার আগেই ফজর আলী ওরফে হেলাল (২৫) তার মুখ চেপে ধরে ভিকটিমের বাড়ির পশ্চিম পার্শ্বে সাহাব উদ্দিন কালুর বাড়ির পুকুর পাড়ে নিয়ে যান।

সেখানে একই এলাকার আব্দুর রহীমের ছেলে মো. মিরাজ (২৮), মৃত মোয়াজ্জম হোসেনের ছেলে ফজর আলী প্রকাশ হেলাল (২৫) ও মৃত খোরশেদ আলমের ছেলে মো. নেজাম (৫০) গৃহবধূকে পালাক্রমে ধর্ষণ করেন। পরে এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নিজেই বাদী হয়ে মঙ্গলবার (২ মার্চ) ৩ জনকে আসামি করে হাতিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন।

হাতিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কাঞ্চন কান্তি দাস ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, মামলার আলোকে আসামিদের আটক করেছে পুলিশ। আটক আসামিদের গ্রেফতার দেখিয়ে বিচারিক আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে।

এফএ/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]