জমি নিয়ে দু’গ্রুপের সংঘর্ষে গুলিবিদ্ধ ১

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি ঝালকাঠি
প্রকাশিত: ০২:০৭ পিএম, ১১ এপ্রিল ২০২১

ঝালকাঠির রাজাপুরে জমির সীমানা প্রাচীর নির্মাণে বাধা দেয়াকে কেন্দ্র করে দু’গ্রুপের সংঘর্ষ হয়েছে। এতে প্রতিপক্ষের গুলিতে আব্দুল করিম বাবুল মৃধা (৫৭) নামের এক ব্যক্তি গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। বর্তমানে তাকে বরিশাল শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয়ে (শেবাচিম) পাঠানো হয়েছে।

রোববার (১১ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ১০টায় উপজেলার মেডিকেল মোড় এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আহতকে উদ্ধার করে রাজাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। এরপর উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শের-ই-বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয়ে (শেবাচিম) পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনার পর একইদিন দুপুরে অভিযুক্ত উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও আলহাজ লালমোন হামিদ মহিলা কলেজের বাংলা প্রভাষক মাহফুজুর রহমানের বাসা থেকে রাজাপুর থানা পুলিশ লাইসেন্সধারী একনালা বন্দুক, এক রাউন্ড গুলি, একটি ছুরি ও একটি দেশীয় অস্ত্র (গুপ্তি) জব্দ করে।

গুলিবিদ্ধ আব্দুল করিম বাবুল মৃধা সাংগর গ্রামের নুরুল হক মৃধার ছেলে ও মেডিকেল মোড় এলাকায় বরিশাল-খুলনা বাস কাউন্টার পরিচালনা করেন।

গুলিবিদ্ধ আব্দুল করিমের ছোট ভাই বরকত মৃধা জানান, দীর্ঘদিন ধরে প্রতিপক্ষ মাহফুজুর রহমানের সঙ্গে জমি নিয়ে বাবুল মৃধার বিরোধ চলছিল। শনিবার (১০ এপ্রিল) ওই জমিতে জোরপূর্বক সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করা শুরু করলে থানায় অভিযোগ দেয়া হয়। এরপর পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে কাজ বন্ধ করে দেয়।

কিন্তু রোববার সকালে পুলিশি নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে আবারো কাজ শুরু করে। এসময় বাবুল মৃধা ও বরকত বাধা দিতে গেলে বাগ-বিতণ্ডার একপর্যায়ে ঘরের সামনের কক্ষের জানালা দিয়ে বাবুলকে লক্ষ করে গুলি ছোঁড়া। এতে তার হাত ও পেটে একাধিক জখম হয়।

রাজাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে কর্মরত মেডিকেল সহকারী কনক প্রভা সরকার জানান, তার হাতে ও পেটে গুলিবিদ্ধ হয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বরিশাল পাঠানো হয়েছে।

রাজাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনায় আইনি ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। তবে অভিযুক্ত মাহফুজকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

আতিকুর রহমান/এসএমএম/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]