সন্ধ্যায় স্বামীর সঙ্গে বাগবিতণ্ডা, রাতে লাশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
নিজস্ব প্রতিবেদক নিজস্ব প্রতিবেদক বগুড়া
প্রকাশিত: ০৪:০৬ পিএম, ১১ এপ্রিল ২০২১

বগুড়ার আদমদীঘিতে রাতে স্বামীর সঙ্গে বাগবিতণ্ডার পর রুনা আক্তার (১৭) নামের এক গৃহবধূ গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন। রোববার (১১ এপ্রিল) সকালে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠায়।

মারা যাওয়া রুনা আক্তার উপজেলার সান্তাহার পৌর শহরের তিয়রপাড়া মহল্লার সোহাগের স্ত্রী।

পরিবার ও পুলিশ সূত্র জানায়, উপজেলার তিয়রপাড়া গ্রামের সুজাউদ্দীনের ছেলে ট্রাকচালক সোহাগ হোসেনের সঙ্গে আটমাস আগে ফরিদপুরের গাফফার শেখের মেয়ে রুনার বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই স্বামী-স্ত্রীর কলহ চলছিল। শনিবার সন্ধ্যায় বাগবিতণ্ডার একপর্যায়ে রুনাকে মারধর করেন সোহাগ। পরে স্বামীর ওপর অভিমান করে রাতে ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেন রুনা। খবর পেয়ে পুলিশ গৃহবধূর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

সান্তাহার পুলিশ ফাঁড়ির উপপরিদর্শক (এসআই) আব্দুল ওয়াদুদ বলেন, ধারণা করা হচ্ছে ওই গৃহবধূ আত্মহত্যা করেছেন। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে জানা যাবে।

এ ঘটনায় থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

এসআর/জিকেএস

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]