ধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা প্রতিবন্ধী নারী, দুজনের নামে মামলা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নারায়ণগঞ্জ
প্রকাশিত: ০৯:১০ পিএম, ২২ এপ্রিল ২০২১
প্রতীকী ছবি

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় একাধিকবার ধর্ষণের ঘটনায় ৩৫ বছর বয়সী স্বামী পরিত্যক্তা এক প্রতিবন্ধী নারী তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা বলে অভিযোগ উঠেছে।

বৃহস্পতিবার (২২ এপ্রিল) এ ঘটনায় ওই প্রতিবন্ধী নারীর ভাই বাদী হয়ে দুজনের বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় ধর্ষণ মামলা করেছেন।

মামলার সূত্রে জানা গেছে, ফতুল্লার পাগলা চিতাশাল এলাকার প্রতিবন্ধী নারীর গত তিন বছর পূর্বে বিয়ে হয়। দুই বছর সংসার করার পর নারী প্রতিবন্ধী হওয়ার তার স্বামী তাকে ফেলে চলে যান। এরপর থেকে তিনি বাবার বাড়িতে থাকেন। খলিলুর রহমান (৪২) ওই প্রতিবন্ধী নারীর বাবার বাড়িতে ভাড়া থেকে দোকানে ওষুধ বিক্রি করেন। সেই সুবাদে তাদের সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে ওঠে। একই এলাকার বজলুর রহমানের ছেলে রাসেল (৪৩) প্রতিবেশী হওয়ায় তার সঙ্গেও সম্পর্ক গড় ওঠে।

সম্পর্কের সুযোগে খলিলুর রহমান তার ফার্মেসির পেছনে রোগীদের বিছানায় বিভিন্ন প্রলোভন দেখিয়ে ওই নারীকে ধর্ষণ করেন। আর রাসেল কৌশলে এক ব্যক্তির বাড়িতে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করেন। তারা বিভিন্ন সময় পর্যায়ক্রমে প্রতিবন্ধী নারীকে ধর্ষণ করেন। এতে ওই নারী তিন মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন।

এতে করে প্রতিবন্ধী নারী অসুস্থ হয়ে পড়লে বিভিন্ন কবিরাজ দেখানো হলেও কোনো সুফল না পাওয়ায় একজনের পরামর্শ আল্ট্রাসোনোগ্রাম করানো হলে অন্তঃসত্ত্বার রিপোর্ট আসে। পরে এক নারীর মাধ্যমে প্রতিবন্ধীর সঙ্গে কথা বলে অভিযুক্তদের শনাক্ত করা হয়। পরে অভিযুক্তরা মীমাংসার চেষ্টা করেন।

এ বিষয়ে ফতুল্লা মডেল থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) শফিকুল ইসলাম জানান, প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা গ্রহণ করা হয়েছে। অভিযুক্তদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে। খুব শিগগিরই তাদেরকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

মো. শাহাদাত হোসেন/এসজে/জেআইএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]