রাজমিস্ত্রিকে রাস্তায় কুপিয়ে জখম, ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে উদ্ধার

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী
প্রকাশিত: ০২:০১ এএম, ০৮ মে ২০২১

 

নোয়াখালীর চাটখিলে পাওনা টাকা চাওয়ায় এক রাজমিস্ত্রিকে কুপিয়ে রাস্তায় ফেলে যাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। পরে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন দেয়ার পর উপজেলার নোয়াখলা ইউনিয়নের সাতরা পাড়ার ওসমান আলী চৌকিদার বাড়ির সামনে থেকে তাকে উদ্ধার করে পুলিশ।

শুক্রবার (৭ মে) রাতে এ ঘটনা ঘটে।

হামলার শিকার ওই ব্যক্তির নাম বেলায়েত হোসেন (৩০)। তিনি লক্ষ্মীপুরের রামগতি উপজেলার চরপোড়া কাঁচা গ্রামের মো. ফারুকের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন থেকে চাটখিল পৌরসভার এলাকায় বসবাস করে আসছেন।

ভুক্তভোগীর মামা লিটন জানান, বেলাল পেশায় একজন রাজমিস্ত্রি। রাসেল নামের এক ঠিকাদারের কাছে তার কাজের টাকা পাওনা ছিল। ওই ঠিকাদার বৃহস্পতিবার (৬ মে) তাকে টাকা দেবেন বলে উপজেলার পাঁচগাঁও ইউনিয়নের মোস্তান নগরে নিয়ে যায়। কিন্তু সেখানে টাকা না দিয়ে শুক্রবার টাকা দেয়ার কথা বলে তাকে পাঠিয়ে দেন। শুক্রবার সন্ধ্যায় বেলাল তার বাসা থেকে পাওনা টাকার জন্য রাসেলের উদ্দেশে বাসা থেকে বেরিয়ে যান। রাত ৯টার দিকে খবর আসে স্থানীয় এক বাসিন্দা তাকে গুরুতর আহত অবস্থায় রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখে জাতীয় জরুরি সেবা ৯৯৯ নম্বরে ফোন দেন। ফোন পেয়ে খিলপাড়া তদন্ত কেন্দ্রের উপ-পরিদর্শক (এসআই) নুর আলম তাকে উদ্ধার করে চাটখিল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। অবস্থা সংকটাপন্ন হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠান।

তিনি আরও জানান, হামলাকারী তার বাম হাতের রগ কেটে দিয়েছেন। এছাড়া কোমরে ও মাথায় কোপানোর চিহ্ন রয়েছে।

এ বিষয়ে চাটখিল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ারুল ইসলাম জানান, পুলিশ আহত যুবককে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। ওই যুবক এখনও অচেতন অবস্থায় রয়েছেন। তাই এ বিষয়ে বিস্তারিত কোনো কিছু জানা যায়নি। লিখিত অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এসআর/এএএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]