বরগুনায় যুবলীগ-শ্রমিকলীগ নেতাকে কুপিয়ে জখম

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি বরগুনা
প্রকাশিত: ০৯:০৪ এএম, ২২ মে ২০২১ | আপডেট: ১১:২৮ এএম, ২২ মে ২০২১

বরগুনার আমতলীতে যুবলীগ নেতা মো. আবুল কালাম আজাদ ও উপজেলা জাতীয় শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. হাসান মৃধাকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে দুর্বৃত্তরা। তারা আশঙ্কাজনক অবস্থায় বরিশাল শেরে-এ-বাংলা হাসপাতালে (শেবাচিম) হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

শুক্রবার (২১ মে) রাত সাড়ে ৮টায় আমতলী উপজেলার মাইঠা এলাকার শারিকখালী খালের পাড়ে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে আমতলী হাসপাতালে নিয়ে আসে। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় দুজনকে বরিশাল শেবাচিম হাসপাতালে পাঠানো হয়। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। এ ঘটনায় এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে।

জানা যায়, শুক্রবার রাত ৮টায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মতিয়ার রহমানের ভাগ্নে মো. আবুল কালাম আজাদ ও উপজেলা জাতীয় শ্রমিকলীগ সাধারণ সম্পাদক মো. হাসান মৃধা দাওয়াত খেতে মাইঠা গ্রামে যান। এসময় গ্রামের রাস্তায় ওত পেতে থাকা দুর্বৃত্তরা আজাদ ও হাসানকে শারিকখালী খালের পাড়ে নিয়ে যায়।

পরে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আজাদ ও হাসানকে রাস্তার পাশে ফেলে রাখে যায় দুর্বৃত্তরা।

আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. মো. মোশের্দ আলম বলেন, গুরুতর আহত আজাদের দুই হাত ও দুই পায়ের বিভিন্ন স্থানে কোপানো হয়েছে। আজাদের রক্তক্ষরণ বন্ধ করা যায়নি। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক। আর আহত হাসানের দু’হাতে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাতের চিহৃ রয়েছে।

আমতলী উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মতিয়ার রহমান বলেন, দাওয়াত দিয়ে ডেকে নিয়ে রাজনৈতিক প্রতিপক্ষরা কৌশলে আমার ভাগ্নে আজাদ ও শ্রমিকলীগ নেতা হাসানকে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেছে। আমি এ ঘটনায় জরিতদের শাস্তি দাবি করছি।

আমতলী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রনজিত কুমার সরকার বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি। অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

এসএমএম/এএসএম

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]