ফাঁকা মহাসড়ক, ব্যস্ত বাসস্ট্যান্ড

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি সিরাজগঞ্জ
প্রকাশিত: ১২:৩০ এএম, ২৩ জুলাই ২০২১

ঈদুল আজহার পরের দিন সন্ধ্যায় সিরাজগঞ্জের মহাসড়ক ফাঁকা থাকলেও ব্যস্ততা দেখা গিয়েছে হাটিকুমরুল ও কড্ডার ঢাকামুখী বাসস্ট্যান্ড এলাকায়।

বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) রাত ৮টার দিকে ঢাকামুখী মহাসড়কের হাটিকুমরুল গোলচত্বর এলাকায় দেখা গেছে এখানে অন্তত প্রায় শতাধিক বাস যাত্রীর অপেক্ষায় দাঁড়িয়ে রয়েছে।

তবে বাসস্ট্যান্ড এলাকা বাসের সুপারভাইজার হেলপারদের ডাকে মুখরিত। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি বাস ঢাকা সিটির মধ্যে চলাচলকারী। আজমেরী গ্লোরী, মৌমিতা, ঠিকানা, সাভার পরিবহন, আলিফসহ আরও কিছু বাস রয়েছে। এছাড়াও রয়েছে ঢাকা-রংপুর ও ঢাকা-রাজশাহী কিছু লোকাল সার্ভিস। তবে মহাসড়কে দূরপাল্লার অন্যান্য বাসও চলছে।

বাসের অপেক্ষায় থাকা মাসুদা নামের এক গার্মেন্টস কর্মী বলেন, গার্মেন্টস বন্ধ থাকলেও পরে কী হবে জানি না। অফিস থেকে ফোন দেয়ার কথা থাকলেও দেয়নি। যেহেতু কাল থেকে লকডাউন তাই আজকেই রাতে ঢাকা চলে যাচ্ছি। যেন অফিস খুললে আর সমস্যায় না পড়ি।

গাজীপুর চৌরাস্তাগামী আজমেরী গ্লোরী বাসের সহকারী মো. জব্বার বলেন, ‘এক ঘণ্টা হলো দাঁড়িয়ে থেকে এখন পর্যন্ত তিনজন যাত্রী পেয়েছি। ৪০০ টাকার ভাড়া ২০০ টাকা নিচ্ছি তবুও যাত্রী নাই। ভাড়া না পেলেও মহাজনকে টাকা দিতেই হবে তাই অপেক্ষায় আছি।’

হাটিকুমরুল হাইওয়ে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. আব্দুল্লাহেল বলেন, ‘মহাসড়ক একদম ফাঁকা, তবে হাটিকুমরুল এলাকার ঢাকা রোডে অনেক গাড়ি যাত্রীর অপেক্ষায় আছে। এর বেশিরভাগই ঢাকা ফেরত বাস।’

মহাসড়কে দায়িত্বে থাকা কড্ডার ট্রাফিক ইন্সপেক্টর (টিআই) মো. আব্দুল গণি বলেন, ‘মহাসড়ক একদম ফাঁকা। মাঝে মাঝে কিছু যানবাহন চলাচল করছে। আগামীকাল থেকে লকডাউন এ জন্য মহাসড়ক একদম ফাঁকা রয়েছে।’

ইউসুফ দেওয়ান রাজু/জেডএইচ/

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]