৫ দিনের মাথায় দ্বিতীয় বিয়ে করতে গিয়ে ধরা ব্যাংক কর্মকর্তা

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নোয়াখালী
প্রকাশিত: ০৮:৩৯ পিএম, ২৭ জুলাই ২০২১
প্রতীকী ছবি

নোয়াখালীর হাতিয়ায় প্রথম বিয়ের পাঁচ দিনের মাথায় দ্বিতীয় বিয়ে করতে গিয়ে ধরা খেলেন আবদুল বাতেন রাজিব (২৭) নামের এক ব্যাংক কর্মকর্তা।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) বিকেলে প্রথম স্ত্রীর মায়ের করা মামলায় তাকে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে পুলিশ।

এর আগে সোমবার (২৬ জুলাই) হাতিয়া পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের শূন্যচর গ্রাম থেকে তাকে আটক করা হয়। রাজিব হাতিয়া পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের চর কৈলাস গ্রামের আবদুল হালিম মিয়ার ছেলে এবং কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার পূবালী ব্যাংকের বসুরহাট শাখায় সিনিয়র কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে হাতিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল খায়ের জানান, ২২ জুলাই আবদুল বাতেন রাজিবের সঙ্গে তমরদ্দি ইউনিয়নের ক্ষিরোদিয়া গ্রামের ডা. আলী আকবর হোসেনের মেয়ে তাছলিমা আক্তার শিউলির বিয়ে হয়। ২৬ জুলাই হাতিয়া পৌরসভার ৭ নম্বর ওয়ার্ডের শূন্যচর গ্রামের মাস্টার আবদুল আলিম রুবেলের মেয়েকে বিয়ে করার কথা জানতে পারেন প্রথম স্ত্রীর মা হোসনে আরা বেগম। এরপর তার অভিযোগের ভিত্তিতে ওই গ্রাম থেকে রাজিবকে গ্রেফতার করা হয়।

ওসি আরও জানান, হোসনে আরা বেগমের করা নারী নির্যাতন মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

ইকবাল হোসেন মজনু/এসজে/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]