চিকিৎসা নিতে গিয়ে হাসপাতালে হামলা, চিকিৎসকসহ আহত ৩

জেলা প্রতিনিধি
জেলা প্রতিনিধি জেলা প্রতিনিধি নেত্রকোনা
প্রকাশিত: ০৮:৩৭ এএম, ০৪ আগস্ট ২০২১
ফাইল ছবি

নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগে চিকিৎসা নিতে গিয়ে দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসকসহ তিনজন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) রাতে মোহনগঞ্জ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় দুই জনকে আটক করেছে পুলিশ।

আহতরা হলেন- জরুরি বিভাগের দায়িত্ব পালনরত চিকিৎসক জান্নাতুন নেচ্ছা চাঁদনী, স্টাফ মো. শাহজাহান সিরাজ ও ইমাজেন্সি এটেন্ডেন্ট মো. সুমন।

অপরদিকে আটকরা হলেন- উপজেলার কলেজ রোড এলাকার মৃত গোলাম মোস্তফার ছেলে মিটু (২৮) ও টেঙ্গাপাড়া এলাকার সারোয়ার ভেন্ডারের ছেলে রাজন (২৫)।

হাসপাতাল সূত্র জানায়, মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলা সদরের পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে ফুটবল খেলা নিয়ে দুই পক্ষের সংঘর্ষ হয়। পরে উভয় পক্ষের লোকজন হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে যায়। সন্ধ্যার পর জরুরি বিভাগে ওই দুপক্ষের দেখা হলে আবারও সংঘর্ষ শুরু হয়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসকসহ তিনজন আহত হন। এসময় অক্সিজেন সিলিন্ডার ও জানালার কাঁচ ভাঙচুর করে হামলাকারীরা।

খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) আরিফুজ্জামান, বারহাট্টা সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. সাইদুর রহমান ও ওসি (তদন্ত) রাশেদুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার ও পরিকল্পনা কর্মকর্তা নুর মোহাম্মদ শামসুল হক বলেন, এ ঘটনায় দুই জনের নাম উল্লেখ করে আরও ১৫-২০ জনকে আসামি করে থানায় লিখিত অভিযোগ দেয়া হয়েছে।

মোহনগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) রাশেদুল ইসলাম বলেন, ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে দুইজনকে আটক করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

এইচ এম কামাল/আরএইচ/এমকেএইচ

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে আমাদের জীবন। আনন্দ-বেদনায়, সংকটে, উৎকণ্ঠায় কাটছে সময়। আপনার সময় কাটছে কিভাবে? লিখতে পারেন জাগো নিউজে। আজই পাঠিয়ে দিন - [email protected]